অবেশেষে আটক চীনা সেনাকে বিশেষ প্রটোকল দিয়ে ফিরিয়ে দিয়েছে ভারত। লাদাখের চুমার-ডেমচক সীমান্তে থেকে পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) ওই সেনাকে আটক করে ভারতীয় সেনা সদস্যরা। মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর রাতে চীনের পিপিল’স লিবারেশন আর্মি- পিএলএ’র কাছে হস্তান্তর করে ভারতীয় বাহিনী।

গেল সোমবার ভুলবশত ভারতীয় সীমানায় ঢুকে পড়ে চীনা সেনা ওয়াং ইয়া লং। লাদাখের চুমার-ডেমচক এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। ওই সময় তার কাছে বেশকিছু সামরিক নথি পাওয়া যায় বলে দাবি ভারতীয় বাহিনীর। অনিচ্ছাকৃতভাবেই ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েন বলে ধারণা করা হয়। তিনি চীনা সেনাবাহিনীতে করপোরাল পদে কর্মরত।

তাকে আটক করার পর পিএলএ’র ওই সেনাকে অক্সিজেন, খাবার এবং গরম পোশাক দেয়া হয়। এমনকি তার চিকিৎসার ব্যবস্থাও করা হয় বলে জানায় ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। পরে চীনের পক্ষ থেকে নিখোঁজ সেনার বিষয়ে ভারতের কাছে জানতে চাইলে তার অবস্থান জানানো হয়।

লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাবাহিনীর আগ্রাসনের পর থেকে উত্তপ্ত পরিস্থিতি রয়েছে চীন-ভারত সীমান্তে। গত কয়েকমাসে সীমান্ত উত্তেজনা কমাতে একের পর এক বৈঠক করেছে দুই দেশ। কিন্তু এতেও সীমান্তে উত্তেজনা কমেনি। একদিকে আলোচনা চলছে অন্যদিকে দুই দেশই যুদ্ধের জন্য তৈরি। দিন যত এগোচ্ছে সীমান্তের দু’দিকেই সেনা সমারোহ ও আগ্নেয়াস্ত্র মজুতের বহর বাড়ছে।

গত জুন মাসে পূর্ব লাদাখে ভারত-চীন প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর গলওয়ান উপত্যকায় দুই দেশের সেনাদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। এতে ভারতের ২০ জন জওয়ান নিহত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here