সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে কর্মরত শিক্ষকদের সমন্বয়ে
আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান-এর কারিগরি শাখা কমিটি গঠিত
মো. সুমন হায়দারকে সভাপতি ও সৈয়দ ওমর ফারুককে সাধারণ সম্পাদক করে
মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন ‘আমরা মুক্তিযোদ্ধার
সন্তান’ এর ২৯ সদস্য বিশিষ্ট কারিগরি শাখার নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে।
শিক্ষা অধিদপ্তরাধীন সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে কর্মরত শিক্ষকদের নিয়ে
এই কমিটি গঠিত হয়েছে।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. সাজ্জাদ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ
রাশেদুজ্জামান শাহীন আগামী দুই বছরের জন্য আজ এই কমিটি অনুমোদন করেন।
আজ সকালে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কমিটি অনুমোদনের সময় প্রেসিডিয়াম
সদস্য জোবায়দা হক অজন্তা, সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন মৃদুল,
ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক মনির, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক গোলজার হোসেন, প্রচার
সম্পাদক সাদিকুল ইসলাম নিয়োগী পন্নী উপস্থিত ছিলেন।

কমিটিতে মো. আজিজুর রহমান, জাহিদ রানা, অরণ্য রায়কে সহ-সভাপতি। মো.
আমিনুল হককে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মো. মেহেদী হাসানকে সাংগঠনিক সম্পাদক,
মো. ইমন আলীকে তথ্য ও প্রচার সম্পাদক, রওশন শাদ ফেরদৌসীকে সহ-তথ্য ও
প্রচার সম্পাদক, তানজিনা তাবাসসুম তন্বীকে তথ্য প্রযুক্তি ও গবেষনা
সম্পাদক, মো. আহাদ আলীকে অর্থ বিষয়ক সম্পাদক,  মোহাম্মদ হায়দার আলী
চৌধুরীকে আইন বিষয়ক সম্পাদক, মোহাম্মদ হামিদুর হককে ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক
সম্পাদক (ঢাকা ও ময়মনসিংহ), মো. আমিনুল ইসলামকে সহ-ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক
সম্পাদক (ঢাকা ও ময়মনসিংহ), মো. আল আমিন হোসাইনকে ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক
সম্পাদক (রাজশাহী ও রংপুর), এম. এ. মলিকে সহ-ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক
(রাজশাহী ও রংপুর), সৌমিত্র দাসকে ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক (চট্রগ্রাম
ও সিলেট), কাজী সারোয়ারকে সহ-ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক (চট্রগ্রাম ও
সিলেট), মো: হানিফ শিকদারকে ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক (খুলনা ও
বরিশাল), মাজেদা খাতুনকে সহ-ছাত্র/ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক (খুলনা ও
বরিশাল), মো. মাহমুদ হাসানকে ধর্ম বিষয়ক সস্পাদক, মো. তৌহিদুর রহমান
ত্রান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক, ফাতেমা খাতুনকে স্বাস্থ্য ও
চিকিৎসা সেবা বিষয়ক সম্পাদক, মেহের নিগার সুলতানাকে মুক্তিযোদ্ধা ও
গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক। মো: গিয়াস উদ্দিন, মো. আব্দুল গফুর, বিভা নিকেতি
নীর, মো. শফিকুল ইসলাম ও মো. সানিয়াত বুরহানকে সম্মানিত সদস্য করা হয়েছে।
সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে কর্মরত শিক্ষকসহ সেখানে অধ্যয়নরত
মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শিক্ষার্থীর মাঝে দেশের
গৌরবোজ্জল মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সঠিক ইতিহাস প্রচার এবং সরকারের গৃহীত
নানামুখী উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তুলে ধরার মাধ্যমে দেশের ভাবমুর্তি উজ্জল
করতে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে এই কমিটি কাজ করবে বলে
কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বিশ্বাস করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here