ইবিতে ছাত্রনেতা বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি বশেমুরবিপ্রবি ছাত্র ইউনিয়নের

Share It
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

তানবির আলম খান, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. সাদিকুল ইসলাম ওরফে জি. কে. সাদিককে ফেসবুক স্ট্যাটাসের জের ধরে সাময়িক বহিষ্কার করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। চূড়ান্ত বহিষ্কার কেন করা হবেনা, ৭ দিনের মধ্যে তাঁর ব্যাখ্যাও জানতে চাওয়া হয়েছে। এই ঘটনার নিন্দা ও বহিষ্কারাদেশ দ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বশেমুরবিপ্রবি সংসদ। আজ (১৬ ই জুন) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বশেমুরবিপ্রবি সংসদের দপ্তর সম্পাদক সুর্বনা রায় বিষয়টি গণমাধ্যম কে জানান। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বশেমুরবিপ্রবি সংসদের সভাপতি রথীন্দ্র নাথ বাপ্পী ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল মিলন যৌথ বিবৃতিতে বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে সরকারের বিভিন্ন কর্মকান্ডের যৌক্তিক সমালোচনা করলেই কণ্ঠরোধ করার চেষ্টা হচ্ছে। মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে ক্ষুণ্ণ করে ভয় ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। এরই ধারাবাহিকতায়, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক জি. কে. সাদিককে অভিযুক্ত করে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। আমরা অনতিবিলম্বে এই বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করার দাবি জানাচ্ছি। গতকাল ১৫ই জুন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে জানানো হয়েছে, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সাদিকুল ইসলাম নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন বর্ষীয়ান জাতীয় রাজনীতিবিদসহ বুদ্ধিজীবী, রাজনৈতিক দল সম্পর্কে অশ্লীল, ব্যাঙ্গাত্মক, আপত্তিকর, প্রতিহিংসাপরায়ণ ও নৈতিক মূল্যবোধ পরিপন্থী বক্তব্য ধারাবাহিকভাবে উপস্থাপন করে চলেছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, যখন করোনায় মৃত ব্যক্তিবর্গের জন্য দলমত নির্বিশেষে গভীরভাবে শোকাহত, তখন তাঁর প্রদত্ত স্ট্যাটাস বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করেছে, যা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির কারণ হতে পারে।


Share It
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here