কমিউনিটি ক্লিনিক ব্রহ্মপুত্রে বিলীন

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ব্রহ্মপুত্রের ভাঙনে গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার চরাঞ্চলে একটি কমিউনিটি ক্লিনিক বিলীন হয়ে গেছে। গত শুক্রবার সকালে উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়নের উজালডাঙ্গা কমিউনিটি ক্লিনিকের পুরোটাই নদীতে ধসে পড়ে। এই ক্লিনিকে স্বাস্থ্যসেবা পেত চরাঞ্চলের কয়েক হাজার মানুষ।

জানা যায়, ২০১১ সালের দিকে প্রায় সাড়ে ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে উজালডাঙ্গা কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হয়। তার পর থেকেই ফজলুপুর ইউনিয়নের লোকজন স্বাস্থ্যসেবা পেতে থাকে। এর আগে চরের লোকজন অসুখ-বিসুখ হলে ব্রহ্মপুত্র পাড়ি দিয়ে উপজেলা সদরের হাসপাতালে এসে চিকিৎসাসেবা নিতেন। অনেক সময় পথেই রোগী মারা যেতেন। উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়নের খাটিয়ামারী চর এলাকার কৃষক ওমর আলী মণ্ডল বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকটি নদীতে বিলীন হয়ে যাওয়ায় চরের মানুষ স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হলো।

উজালডাঙ্গা গ্রামের ফাতেমা বেগম বলেন, ‘ওই ক্লিনিকত নারী আপার কাছে হামরা চিকিৎসাসেবা নিতাম। বিনা পয়সায় ওষুধ পেতাম। এখন হামরা কোন জায়গাত যায়া চিকিৎসা নিমো।’

ফজলুপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু হানিফ প্রামাণিক বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকটি নদীতে ভেঙে যাওয়ায় আমার ইউনিয়নের মানুষ চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হলো। এসব মানুষ যাতে চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত না হয় সেজন্য অতিদ্রুত অস্থায়ীভাবে আপাতত উজালডাঙ্গা চরে একটি চিকিৎসা ক্যাম্প স্থাপনের দাবি জানান তিনি।

এ বিষয়ে গাইবান্ধা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সহকারী প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম জানান, ২০১০ সালে সাড়ে ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে উজালডাঙ্গা কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হয়। সম্প্রতি ক্লিনিকটি নদী ভাঙনের মুখে পড়ে। এরপর নিলামের জন্য একাধিকবার বিজ্ঞপ্তিও দেওয়া হয়েছিল।

গোবিন্দগঞ্জের এক ঠিকাদার নিলামে ক্লিনিকটি কিনেছিলেন, কিন্তু ঘটনাস্থলে গিয়ে ক্লিনিকের অবস্থা দেখে তিনি আর টাকা জমা দেননি। গত শুক্রবার সকালে ক্লিনিকটি নদীতে ভেঙে পড়ে।


Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here