করোনায় বেড়েছে অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার, আতঙ্কিত বিশেষজ্ঞরা

করোনায় বেড়েছে অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার, আতঙ্কিত বিশেষজ্ঞরা
করোনায় বেড়েছে অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার, আতঙ্কিত বিশেষজ্ঞরা
Share It
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) মহামারিতে দেশে বেড়েছে অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার। প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি অ্যান্টিবায়োটিক দেয়া হচ্ছে কোভিড নির্দিষ্ট হাসপাতালগুলোতেও। এছাড়াও আক্রান্ত না হয়েও কোভিড আতঙ্কে গণহারে অ্যান্টিবায়োটিক সেবনে ভবিষ্যতে মৃত্যুহার বাড়াবে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। সরকারিভাবে রোগীদের অ্যান্টিবায়োটিক দেয়ার প্রশ্নে কিছু করার নেই বলে জানিয়েছে ওষুধ প্রশাসন।

করোনা থেকে বাঁচতে আতঙ্কিত মানুষ জেনে-না জেনে সেবন করেছে বিভিন্ন পদের অ্যান্টিবায়োটিক। অন্যের কাছে বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই সেবন করেছে অ্যাজিথ্রোমাইসিন, ডক্সিসাইক্লিন, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনসহ নানা ধরনের শক্তিশালী অ্যান্টিবায়োটিক। রোগীর অবস্থাভেদে অ্যান্টিবায়োটিকের কার্যকরিতার কিছুটা প্রমাণ মিললেও সরকারিভাবে উপজেলা পর্যন্ত পৌছে দেয়া হচ্ছে অ্যান্টিবায়োটিক।

একজন জানান, আমি একজন রোগী ছিলাম। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে আমাকের ছয় ধরনের ওষুধ দেয়া হয়েছে। সেখানে প্যারিসিট্যামলসহ ডক্সিসাইক্লিন দিয়েছেন। সেখানে চিকিৎসক অ্যান্টিবায়োটিকের উপর জোর দিয়েছেন।

গেল ৫ মাসে এই সব অ্যান্টিবায়োটিকের বিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ। ওষুধ বিক্রেতাদের দাবি, এই প্রথম এতো বেশি অ্যান্টিবায়োটিক কিনতে দেখা গেছে সাধারণ মানুষকে।

ফার্মেসির বিক্রেতারা জানান, এই করোনার মহামারিতে অ্যাজিথ্রোমাইসিন বেশি চলেছে। এখন বর্তমানে কোম্পানি এটা সরবরাহ দিতে পারছে না।

দেশের কোভিড হাসপাতালগুলোতে অ্যান্টিবায়োটিকের সর্বোচ্চ ব্যবহার ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনবে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সায়েদুর রহমান খসরু বলেন, বিভিন্ন হাসপাতলে শতকরা ৭০ থেকে ১০০ ভাগ অ্যান্টিবায়োটিক দেয়া হয়েছে। এই কোভিড ম্যানেজমেন্টে যে ভয়ংকর অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হয়েছে। এতে পরবর্তীতে শরীরে বিরূপ প্রভাব ফেলবে।

তাহলে করণীয় কি? প্রশ্ন ছিল ওষুধ প্রশাসনের কাছে।

ওষুধ প্রশাসনের অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আইয়ুব হোসেন বলেন, সরকার যেভাব চলবে, সেভাবে ব্যবহার হবে। আমাদের চিকিৎসকরা সেটাই প্রেসক্রাইব করবেন। চিকিৎসকের প্রেসক্রাইবের উপর আমাদের কোন করণীয় নেই।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, করোনাকালে অতি মাত্রায় অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার ব্যাকটেরিয়ার টিকে থাকার ক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে। যা করোনা সঙ্কট এবং সঙ্কট পরবর্তী সময়েও মৃত্যু হার বাড়াবে বলে আশঙ্কা।

  • সাংবাদিক নিয়োগ : দৈনিক মুক্ত আলো

  • Application Form - আবেদন ফরমটি যথাযথভাবে পূরণ করে নিচের সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন। আবেদন করার আগে নিচে দেওয়া তথ্য গুলি মনোযোগ সহকারে পড়ে নিন।০১৮২৯৪২৪৭৭১ বিকাশ পার্সোনাল, এই নাম্বারে তিনশত টাকা (আবেদন ফি অফেরত যোগ্য) সেন্ড মানি করে নিচে ট্রানজেকশন আইডি উল্লেখ করুন। (অন্যথায় আপনার আবেদন গৃহীত হবে না,তাই আবেদন করার আগে অবশ্যই সেন্ড মানি করে নিবেন)
  • নির্দেশনার টি ভালভাবে পড়ুন

    সাংবাদিক নিয়োগ : দৈনিক মুক্ত আলো জেলা-উপজেলা ও কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে।সারাদেশ থেকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান / নাতী-নাতনীদের ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রকৃত নাগরিকদের আবেদন করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হল – আগ্রহীরা আগামী (৩০/০৯/২০২০ইং) এর মধ্যে আবেদন জমা দিন জমা দিনঃ ০১৮২৯৪২৪৭৭১ বিকাশ পার্সোনাল, এই নাম্বারে তিনশত টাকা (আবেদন ফি অফেরত যোগ্য) সেন্ড মানি করে নিচে ট্রানজেকশন আইডি উল্লেখ করেন। (অন্যথায় আপনার আবেদন গৃহীত হবে না,তাই আবেদন করার আগে অবশ্যই সেন্ড মানি করে নিবেন) সবার আগে দেশ ও বিদেশের সব খবরের পিছনের খবর জানতে ও জানাতে দেশের প্রতিটি জেলায় সংবাদ প্রতিনিধি,থানা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি,বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি,ব্যুরো চিফ,ও গুরুত্বপূর্ণ বিটে স্টাফ রিপোর্টার,এবং স্কুল,কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুরুষ/মহিলা সেচ্ছাসেবী শিক্ষানবিশ সাংবাদিক নিয়োগ করা হবে । প্রর্থীর যোগ্যতা: # শিক্ষাগত যোগ্যতা কমপক্ষে এইচ,এস,সি.অথবা সমমান হতে হবে। # প্রার্থীর নিজেস্ব ল্যাপটপ/ কম্পিউটার থাকলে ( অগ্রাধিকার দেওয়া হবে) # এম,এস,ওয়ার্ডে বাংলায় টাইপিং জানা থাকলে( অগ্রাধিকার দেওয়া হবে) # ক্যামেরা থাকালে( অগ্রাধিকার দেওয়া হবে) # কোন কপি রাইট সংবাদ প্রেরন করা যাবে না। # প্রেরিত সংবাদের সহিত সংবাদ সর্ম্পকিত ছবি/ভিডিও পাঠানোর চেষ্টা করতে হবে।#অভিজ্ঞ প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। #প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও নাতী-নাতনীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি আপলোড করুন। জাতীয় পরিচয় পত্রের ছবি আপলোড করুন। শিক্ষার্থীদের জন্য কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ডের ছবি আপলোড করুন। সর্বশেষ শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেটের ছবি আপলোড করুন। । অভিজ্ঞতার ক্ষেত্রে: অভিজ্ঞতা সনদের ছবি আপলোড করুন। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যের ক্ষেত্রে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সকল কাগজপত্র ছবি আপলোড করুন। নির্বাচিত সংবাদ কর্মীদেরকে যোগ্যতা অনুযায়ী বিশেষ প্রক্রিয়ায় সম্মানী প্রদান করবে । যোগাযোগ: Phone: 01829424771 E-mail: doinikmuktoalo.editor@gmail.com Facebook: https://www.facebook.com/doinikmuktoalo.bd
  • আবেদন ফরম - apply now

  •  

Share It
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here