ক্রিকেটার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা রকিবুল হাসানকে নিয়ে চলচ্চিত্র

Share It
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

এ বিষয়ে বিস্তারিত জানালেন সিনেমাটির কাহিনী ও চিত্রনাট্য তৈরি কর জ্যেষ্ঠ ক্রীড়া সাংবাদিক দেবব্রত মুখোপাধ্যায় এবং রকিবুল হাসান। তারা জানান, ক্রীড়ামোদী দর্শকদের চাহিদা মেটাতে এবার বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে ভিন্ন ধর্মী এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

সিনেমাটিতে ক্রিকেটার ও মুক্তিযোদ্ধা রকিবুল হাসানের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় উঠে আসবে বলে জানান দেবব্রত। তিনি বলেন, ছবিটি নির্মাণের পক্ষে একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে রবিবার (১২ জুলাই)।

দেবব্রত মুখোপাধ্যায় ছাড়াও রকিবুল হাসানের বাসায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছবিটির নির্মাতা বান্টি আফজাল এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান হাফ-প্যান্ট সিনেমা ফ্যাক্টরির নির্বাহী প্রযোজক রুমানা শারমীন স্বতি।

দেশে প্রথমবারের মতো কোনো ক্রিকেটারকে নিয়ে নির্মিত হচ্ছে চলচ্চিত্র যার শুরু রকিবুল হাসানকে দিয়ে। দেশে তো সময়ের অনেক জনপ্রিয় ক্রিকেটার ছিলেন, তাহলে তাকে নিয়ে কেনো? উত্তর মিলল দেবব্রত মুখোপাধ্যায়ের কাছে। তিনি বলেন, ‌‘আমরা আসলে শুরুটা করতে চেয়েছি। আর যে কোনও শুরুটা গুরুত্বপূর্ণ। ফলে বেছে নিয়েছি ক্রীড়াঙ্গনের এমন একজনকে, যিনি ক্রিকেটার পরিচয়কে ছাপিয়ে মানচিত্রের বিচারে বড় একজন বীর। তিনি শুধু মাঠেই যুদ্ধটা করেছেন, তা নয়। তার যুদ্ধটা ছিল পাকবাহিনীর মুখোমুখি দাঁড়িয়েও। ফলে এমন একজন জাতীয় বীরকে নিয়ে শুরুটা করতে চেয়েছি। যার ধারাবাহিকতা অন্যরা নিশ্চয়ই পালন করবেন।’

এই ছবিতে উঠে আসবে রকিবুল হাসানের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ তিনটি বছর। ১৯৬৯ থেকে ১৯৭১ সাল। যে সময়টাতে তিনি ব্যাটের মধ্যে বাংলাদেশের পতাকা বেঁধে মাঠে নেমেছেন ক্রিকেটার হিসেবে। একই সময়ে তিনি মুক্তিযুদ্ধ করেছেন রাইফেল হাতে। মূলত এই দুটি বিষয় উঠে আসবে চলচ্চিত্রে। এর পাশাপাশি প্রেম, কষ্ট, ভালো লাগা, ভালোবাসা গুলো উঠে আসবে চলচ্চিত্রের মাধ্যমে।

কাকে নেয়া হবে রকিবুল হাসানের চরিত্রে? নির্মাতা বান্টি আফজাল মনে করছেন রকিবুল হাসানের চরিত্রে নতুন কাউকে নিতে হবে, না হলে চরিত্রটি সত্যিকারভাবে ফুটিয়ে তোলা সম্ভব হবে না।

সিনেমার নাম কী হবে? এখনো অবশ্য নাম ঠিক হয়নি। আগামী বছরের শুরুতে চলচ্চিত্রটি নির্মাণ কাজে হাত দেয়া হবে। তার আগে শেষ করতে হবে কাস্টিং এবং পাণ্ডুলিপি তৈরি।

সিনেমাটির চিত্রনাট্য তৈরি করতে যথেষ্ট কষ্ট করতে হচ্ছে দেবব্রতকে। তিনি জানান, এ জন্য প্রচুর পড়াশুনা ও গবেষণা করতে হচ্ছে। এ বিষয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছেন রকিবুল হাসান।

নিজের জীবনী নিয়ে নির্মিত সিনেমা প্রসঙ্গে রকিবুল হাসানকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘কারও জীবন নিয়ে যদি সিনেমা বানানো হয়, সেটা তো আসলে সিনেমা থাকে না। সেটা হয়ে যায় স্বীকৃতির মতো। এই যে ওরা আমাকে উপলক্ষ করে সিনেমার উদ্যোগ নিলো, এটাকে আমি আমার জীবনের অন্যতম স্বীকৃতি হিসেবে দেখছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের সিনেমায় এমন কালচার নেই বললেই চলে। ফলে এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। এমন কাজ আরও অনেক গুণীজনদের নিয়ে হোক।’

পাকিস্তান শাসন আমলে ক্রিকেট ক্যারিয়ার শুরু করেন রকিবুল হাসান। ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে ঘরোয়া খেলায় যথেষ্ট সফল এই খেলোয়াড়ের পাকিস্তান টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্তির বড় সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু অনেকেই মনে করেন, পূর্ব পাকিস্তান ও বাঙ্গালি তকমায় তাকে সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত করা হয়। ১৯৬৯-৭০ মৌসুমে ঢাকায় অনুষ্ঠিত পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজে দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে রকিবুল হাসান সুযোগ পান। বাংলাদেশ সৃষ্টির পর দীর্ঘদিন জাতীয় দলের ওপেনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। অবসর নেওয়ার পর থেকে এখনও বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়নে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন তিনি নানাভাবে।

 


Share It
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here