“খাওয়ার পূর্বে পানি পান, হেচকি মুক্ত জীবন যাপন”

Share It
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    68
    Shares

হেঁচকি বা হিক্কা আমাদের জীবনের সাথে অতি পরিচিত একটি শব্দ । হেঁচকি  বিষয়ে অনেক কথাবার্তাই আছে । হেঁচকি  বন্ধ করতেও অনেকে অনেক বুদ্ধি পরামর্শ দিয়ে থাকেন । কিন্তু খাওয়ার পূর্বে পানি পান করে নিলে মিলবে হেঁচকি থেকে মুক্তি ইংশাআল্লাহ । এই আঙ্গিকেই ২০১৫ সালের মে মাস থেকে ২০২০ সালের মে মাস পর্যন্ত (প্রায়) , পাঁচ বছর আমার নিজের উপর চালানো গবেষণায় আমি যেই ফলাফল পেয়েছি সেটি হলো, পাঁচ বছরের মধ্যে আমার কখনো হেঁচকি   আসেনি । তাই এর পরিপ্রেক্ষিতে ২৫ শে এপ্রিল  ২০২০  থেকে ১ লা মে ২০২০ পর্যন্ত , ৭দিন আরো ২৯ জনের উপর এই জরিপটি চালানো হয়েছে। আর তা থেকে সত্যিই সুন্দর ফলাফল এসেছে । অংশগ্রহণকারী ২৯ জনের মধ্যে ২১ জনের ৭ দিনে  একবেলায় ও  খাওয়ার সময় হেঁচকি আসেনি । বাকি ৮ জনের মাত্র  কয়েক বেলায় হেঁচকি এসেছে ।  এ জরিপের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে আমরা বলতে পারব , খাওয়ার পূর্বে পানি পান করে হেচকি মুক্ত জীবন যাপন করা যাবে ইংশাআল্লাহ।
সাধারণ পরিচিতিঃ
বাংলা উইকিপিডিয়া থেকে হেঁচকি সম্পর্কে জানা যায়, হেঁচকি (ইংরেজি: hiccup/hiccough) হলো মধ্যচ্ছদা বা ডায়াফ্রামের অনৈচ্ছিক সংকোচনের ফলে সৃষ্ট ঝাঁকুনি যা প্রতি মিনিটে কয়েকবার হয় । চিকিৎসাশাস্ত্রে এটি সিনক্রোনাস ডায়াফ্রাগমাটিক ফ্লাটার (SDF), বা সিংগুল্টাস (Singultus) নামে পরিচিত।
হেঁচকি জরিপ ২০২০:
আমার নিজের ওপর পাঁচ বছর ( মে ২০১৫ থেকে মে ২০২০ প্রায়)  ধরে খাওয়ার পূর্বে পানি পান করে খাবার শুরু করার গবেষণাটি চালানো হয়েছে।  এই পাঁচ বছরের মধ্যে আমার কখনো হেচকি আসেনি । এর পূর্বে মাঝেমধ্যে গ্যাস্ট্রিকের কারণে  আমার বুক জ্বালাপোড়া করত কিন্তু খাওয়ার পূর্বে পানি পান করার পর থেকে এই পাঁচ বছরের মধ্যে আমার কোনো উল্লেখযোগ্য  বুক জ্বালাপোড়া করেনি ।
এর পরিপ্রেক্ষিতে,  ৭ দিন হিসেব করে ২৯ জনের উপর জরিপটি চালানো হয়েছে।  তাদের দৈনিক হেঁচকি আসলো কিনা সেই মান গুলোকে নিয়ে হিসাব করা হয়েছে । ৭ দিন, ২৯ জনের প্রতিদিনের গড় হিসাব নিয়ে সাতদিনের আবার গড় করা হয়েছে। তারপর ফলাফলটি প্রকাশ করা হয়েছে। কেউ কোনো কারণে খাওয়ার পূর্বে পানি পান করার কথা  ভুলে গেলে  তাঁর হিসাবকৃত  সাত দিনের পরবর্তী দিনগুলো থেকে তাঁর  কিছু মান নিয়ে হিসাব নেয়া হয়েছে ।এখানে যে ২৯ জনের সহায়তা নেয়া হয়েছে তারা সকলেই জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের  এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী।তাদের প্রত্যেককেই খাবারের পূর্বে পানি পান করা এবং খাওয়ার মধ্যে হেঁচকি এসেছে কিনা তা সংরক্ষণ করে রাখার অনুরোধ করা হলে তাঁরা   আন্তরিকতার সাথে তাদের মানসমূহ দিয়েছেন।
ফলাফলঃ
তাদের প্রদানকৃত মানের গড় সমূহের উপর গবেষণা চালিয়ে যা পাওয়া গেছেঃ
৭ দিনে,
• অংশগ্রহণকারী ২৯ জনের মধ্যে ২১ জনের একবেলায় ও  খাওয়ার সময় হেঁচকি আসেনি,
• ৫ জনের মাত্র ১ দিন  ১ বেলা করে খাওয়ার সময় হেঁচকি এসেছে,
• বাকি ৩ জনের মধ্যে ১ জনের মাত্র ৩ বেলায়, আরেকজনের ৪ বেলায় হেঁচকি এসেছে এবং বাকি একজনের ৫ বেলায় হেঁচকি এসেছে,
উল্লেখ্য যাদের হেঁচকি এসেছে তারা কেউ কেউ খাওয়ার পূর্বে অল্প পরিমাণ পানি পান করেছেন বলে অবহিত করেছেন ।
উল্লিখিত বার চিত্রটি বা বারচার্টটি আমাদেরকে, ৭ দিনের মধ্যে, আলাদাভাবে দৈনিক হেঁচকি  এসেছে কিনা তাঁর গড়মান প্রদর্শন করছে । হেঁচকি  আসলে তাকে ‘হ্যা’ এবং না আসলে তাকে ‘না’ দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রতিদিন ২৯ জনের হেঁচকি  আসা বা না আসার পরিমাণের গড় হিসাব করা হয়েছে।
প্রথম দিনে ১০.৩৪% ব্যক্তির হেঁচকি  এসেছে এবং ৮৯.৬৬% ব্যক্তির হেঁচকি  আসে নি । যা দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ দিনেও এ অপরিবর্তিত ছিল । কিন্তু ৫ম দিনে হেঁচকি  এসেছিলো মাত্র ৩.৪৪ %ব্যক্তির ।আর বাকি ৯৬.৫৬ %ব্যক্তির হেচকি আসে নি। যা ষষ্ঠ দিনেও অপরিবর্তিত ছিল । সপ্তম দিনে হেঁচকি আসার পরিমাণ একটু বেড়ে যায়, তা ৬.৯ % এ যায় । এবং হেঁচকি না আসা ব্যাক্তিদের শতকরা পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৩.১ % এ ।
আবার পাইচিত্র বা পাই চার্টটি আমাদের ৭ দিনের গড় হিসাব প্রদর্শন করছে। যেখানে আমরা দেখছি, ৭ দিনে ৯২ %ব্যক্তির হেঁচকি আসে নি, কিন্তু ৮% ব্যক্তির হেঁচকি এসেছে।
আমরা খাওয়ার পূর্বে কিন্তু কতক্ষণ পূর্বে পানি পান করব তা নিয়ে একটু আলোচনা করা যাকঃ
ডাক্তাররা সাধারণত গ্যাস্ট্রিক সমস্যা থেকে বাঁচার জন্য খাবার ৩০ মিনিট আগে পানি পান করার কথা বলেন। আবার, Sing Health এর ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়,”হজমে সহায়তা করতে খাবারের ৩০  মিনিটের আগে এক গ্লাস জল পান করুন।মনে রাখবেন,  খাওয়ার আগে বা পরে খুব শীঘ্রই পানি না করার কথা,  কারণ পানি হজমের রসগুলিকে হালকা করবে। খাবারের এক ঘন্টা পরে পানি পান করুন যাতে শরীর পুষ্টিগুলি শোষণ করতে পারে।“
কিন্তু এখানে একটু  ভিন্নমত রয়েছে !
 Healthline ওয়েবসাইট এর Nutrition অংশে প্রমাণ ভিত্তিক গবেষণা থেকে জানা যায়,”অনেকে দাবি করেন যে, খাবারের সাথে জল পান করা পেটের অ্যাসিড এবং হজম এনজাইমগুলিকে হ্রাস করে দেয়,যা আপনার শরীরের পক্ষে খাদ্য হজম করা আরও কঠিন করে তোলে।যাইহোক, এই দাবিটি বোঝায় যে আপনার পাচনতন্ত্রের খাবারের অবিচ্ছিন্নতার সাথে তার নিঃসরণগুলি খাপ খাইয়ে নিতে অক্ষম,যেটি মিথ্যা।
খাবারের সাথে তরল পান করার বিরুদ্ধে তৃতীয় জনপ্রিয় তর্কতে বলা হয় যে, তরলগুলো শক্ত খাবারসমূহের  গতি এমন বাড়ায় যার ফলে আপনার পাকস্থলী থেকে তা প্রস্থান করে।এটি পেটের অ্যাসিড এবং হজম এনজাইমগুলির সাথে খাবারের সংযোগ সময়কে হ্রাস করে, যার ফলে কম হজম হয়,বলে মনে করা হয়।
তবুও, কোনও বৈজ্ঞানিক গবেষণা এই দাবিটিকে সমর্থন করে না।
পাকস্থলী খালি অবস্থা  বিশ্লেষণ  করে এমন একটি সমীক্ষা  পর্যবেক্ষণ করেছে যে, যদিও দ্রবণের চেয়ে তরলগুলি আপনার পাচনতন্ত্রের মাধ্যমে আরও দ্রুত অতিক্রম করে, তবুও শক্ত খাবারের হজমের গতিতে এগুলির কোনও প্রভাব নেই”।
টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এর সমধর্মী বিষয় আলোচিত হয়েছে।
এই আলোচনার দ্বারা আমরা বলতে পারি যে,  খাওয়ার খুব আগেই পানি পান করায় তেমন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।
যাই হোক আমাদের লক্ষ্য হল জরিপটিকে তুলে ধরা। জরিপটি থেকে আমরা বলতে পারি যে, খাওয়ার পূর্বে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করে নিলে হেঁচকি  থেকে মুক্তি মিলবে ইংশাআল্লাহ । তবে খাবার কিছুক্ষণ পূর্বে পানি পান করে নেওয়া যেতে পারে।
উক্ত জরিপ পত্রটি একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে দেখানো হয়েছে। তিনি পত্রটিকে যৌক্তিক বলে আশ্বস্ত করেছেন ।
যারা জরিপটিতে অংশগ্রহণ করেছেন তাঁরা হলেনঃ
সাকিবুল ইসলাম ফারহান, শাকিল আনার, মোঃ জমজম খান, অনিক চক্রবর্তী,  মো. জাহাঙ্গীর আলম, মোঃরেজাউল করিম,রিয়াদ খান, “ক”,  হাবিবা আক্তার হ্যাপি,অনন্যা রহমান,নাহিদ সুলতানা মীম, রাবিয়া আক্তার মনিফা,তানহা, তামান্না ইয়াছমিন, জান্নাতুল ফেরদৌস মলি, ফাতেমা খান তামান্না, ফারিয়া জান্নাত, “খ”,
শরীফ হোসেন, মশিউর রহমান নিরব, মাকসুদুল হাসান  মাহফুজ, মোঃ ছানোয়ার হোসেন, তাঈব আল জামান, সৈয়দা সাদিকা সুলতানা, সাদিয়া ফাইরুজ, তাহসিনা মাহজাবিন মিতুল, জান্নাতুজ জেবা তামান্না, তাসনিয়া জাবিন অর্থি, ছন্দা মিমি ।
এস,এ,এম, গাজী হাসান, শিক্ষার্থী,
এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ,
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়,ত্রিশাল, ময়মনসিংহ ।

Share It
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    68
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here