টাকা চুরি সন্দেহে শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দিনাজপুরের ফুলবাড়িতে টাকা চুরির সন্দেহে শাকিল (১০) নামের মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থী পিটিয়ে রক্তাক্ত করেছেন হাবিব উদ্দিন (৪০) নামের এক মাদ্রাসা শিক্ষক। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের দেবীপুর হাফেজিয়া মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।
আহত শিশু শিক্ষার্থী শাকিল উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের মহিবুর রহমানের ছেলে এবং ওই মাদ্রাসার নাজরা শ্রেণির (আক্ষরিক জ্ঞানদান শ্রেণি) ছাত্র।
আহত শিশু শাকিল জানায়, মাদ্রাসার শিক্ষক হাবিব উদ্দিনের ১৩০ টাকা চুরি যায়। টাকা চুরির ঘটনায় ওই শিক্ষক তাকে সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। চুরির ঘটনা অস্বীকার করায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওই শিক্ষক মাদ্রাসার একটি কক্ষের দরজা-জানালা বন্ধ করে বেত ও লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার করেন। পরে আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অন্তঃবিভাগের ১২নম্বর বিছানায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।
শাকিলের নানা ছাবেদুল ইসলাম বলেন, শাকিলের মা মারা যাওয়ায় তার বাবা অন্যত্র বিয়ে করে চলে গেছে। ফলে সে এতিম হিসেবে ওই মাদ্রাসায় থাকা-খাওয়াসহ লেখাপড়া করে আসছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় হাবিব উদ্দিন নামে ওই শিক্ষক তাকে ব্যাপক মারধর করলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ চৌধুরী বিপ্লব বলেন, বিষয়টি মেনে নেওয়ার মতো নয়। অবশ্যই ওই শিক্ষককে আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।
ফুলবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসিম হাবীব বলেন, ঘটনাটি শোনার পর অভিযুক্ত শিক্ষককে আটকের জন্য পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সে পলাতক থাকায় তাকে আটক করা যায়নি।

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here