টাঙ্গাইলের বাসাইলে গ্রাম্য সালিশে গলা টিপে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ খানকে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় আরও একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত আসামির নাম পাভেল খান (২৫)।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পাভেল এই মামলায় দুই নম্বর আসামি। তিনি উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের মটরা গ্রামের আবু খানের ছেলে। এ নিয়ে এ মামলায় মোট তিনজনকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ।পুলিশ জানায়, ঘটনার পর পরই আসামিরা আত্মগোপনে চলে যায়। পাভেল ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় একটি নির্মাণাধীন ভবনে শ্রমিক হিসাবে কাজ করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাসাইল থানা পুলিশের একটি দল সোমবার সন্ধ্যায় ওই ভবনে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ পাভেলকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে  আজ মঙ্গলবার সকালে পুলিশ তাকে আদালতে পাঠায়।  এ সময় পুলিশ আদালতের কাছে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।প্রসঙ্গত, গত ৩০ অক্টোবর উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের মটরা এলাকায় গ্রাম্য সালিশে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফকে গলা টিপে দুর্বৃত্তরা হত্যা করে। এর একদিন পর নিহত মুক্তিযোদ্ধার ছেলে হাবিব খান বাদী হয়ে ৩১ অক্টোবর(শনিবার) বাসাইল থানায় ১১ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।এ ব্যাপারে বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ আরটিভি নিউজকে বলেন, মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় পাভেলকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর পূর্বে এ মামলায় দুইজন জেল হাজতে রয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here