টাঙ্গাইলে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আ: হামিদ টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইল শহরের চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ মনটি ঘোষ হত্যা মামলায় স্বামী রনি ঘোষকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন আজ মঙ্গলবার(১অক্টোবর) দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় প্রদান করেন। দণ্ডিত রনি ঘোষ টাঙ্গাইল শহরের সাহা পাড়ার রবি ঘোষের ছেলে। আদালক সূত্রে জানা যায় গৃহবধূ মনটি ঘোষ হত্যা মামলায় স্বামী রনি ঘোষকে মৃত্যুদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেয়া হয়েছে। মামলায় গৃহবধূ মনটি ঘোষের শশুর রবি ঘোষ ও জা পূর্ণিমা ঘোষের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদেরকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়। মামলার বিবরণে প্রকাশ, গাজীপুর জেলার নীলনগর গ্রামের চিনি ঘোষের মেয়ে মনটি ঘোষের সাথে টাঙ্গাইল শহরের সাহাপাড়ার রবি ঘোষের ছেলে রনি ঘোষের হিন্দুরীতি অনুযায়ী বিগত ২০১৩ সালের ৩০ জুন বিয়ে হয়। বিয়ের মাত্র আড়াই মাসের মাথায় ১০ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য বিগত ২০১৩ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর রাতে টাঙ্গাইল শহরের সাহাপাড়ার স্বামী রনি ঘোষ সহ পরিবারের অন্যরা গৃহবধূ মনটি ঘোষকে গলাটিপে হত্যা করে। এ বিষয়ে ১৫ সেপ্টেম্বর নিহতের মা চিনি ঘোষ বাদী হয়ে ৫জনকে অভিযুক্ত করে টাঙ্গাইল মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ স্বামী রনি ঘোষ, শশুর রবি ঘোষ ও জা পূর্ণিমা ঘোষকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট প্রদান করে। ট্রাইব্যুনালের পিপি একেএম নাছিমুল আক্তার নাছিম জানান, মামলা চলাকালে দণ্ডিত স্বামী রনি ঘোষ উচ্চ আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হন। পরে সাজা হওয়ার ভয়ে তিনি আত্মগোপনে চলে যান। আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, প্রবীণ আইনজীবী মো. আরফান আলী মোল্লা।


Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here