ডিএমপি’র সঙ্গে বিভিন্ন বেসরকারি সংগঠনের কাজ শুরু

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ট্রাফিক আইন প্রয়োগ ও পথচারীদের ট্রাফিক সচেতনতা বাড়াতে ডিএমপি’র সঙ্গে বিভিন্ন বেসরকারি সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকরা কাজ শুরু করেছে।
রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে এবং ট্রাফিক ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে ডিএমপি’র পক্ষ থেকে সেপ্টেম্বর মাসব্যাপী বিশেষ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।
এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ ৩টি পয়েন্টে মোট ২৬ জন রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকরা (বাংলামটর মোড়, রুপসী বাংলা ক্রসিং ও শাহবাগ মোড়) প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দায়িত্বপালন করছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটিন পুলিশের ( ট্রাফিক) বিভাগ।
এছাড়াও পুলিশের পাশাপাশি রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড ও অন্যান্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকরা পুলিশের সঙ্গে জনসচেতনতামূলক কর্মকাণ্ডে অংশ গ্রহণ করছেন।
আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ডিএমপি পুলিশ (ট্রাফিক) এর আমন্ত্রণে ট্রাফিক পুলিশকে সহায়তা ও পথচারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে কাজ শুরু করেছে রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকরা। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি পুলিশ।
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মো. ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন বলেন, শুধু রাজধানীতে নয়, নিরাপদ সড়কের জন্য সারাদেশের স্কুল-কলেজের সামনের সড়কে জেব্রা ক্রসিং এর জন্য সংকেত অংকনসহ জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ শুরু করবে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।
ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, সেপ্টেম্বর মাসব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে রাজধানীর জাহাঙ্গীর গেট থেকে গুলিস্তান জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত চালু হচ্ছে মডেল ট্রাফিক ব্যবস্থা। যেখানে ট্রাফিক সিগন্যাল বাতির ভিত্তিতে গাড়ি চলাচল করবে।
সূত্র জানায়, বাস স্টপেজের জন্য ১২১টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে এবং সেখানে সাইনবোর্ড লাগানোর কাজ চলছে। এক স্টপেজ থেকে আরেক স্টপেজে যাওয়ার পথে কোথাও বাস থামানো যাবে না এবং বাসের দরজা বন্ধ রাখতে হবে। মাসব্যাপী চলমান ট্রাফিক কর্মসূচিতে প্রতিটি পালায় পুলিশের সঙ্গে ৩২২ জন রোভার স্কাউটের সদস্য কাজ করবে। ট্রাফিক শৃংখলা, দুর্ঘটনা হ্রাস ও ঢাকা মহানগরীকে যানজট মুক্ত রাখার লক্ষ্যে এই কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে।
‘চালকদের গাড়িতে নিজের মোবাইল নম্বর ও ছবি প্রকাশ্য স্থানে লাগিয়ে রাখার আহ্বান জানানো হয়েছে। গাড়ি চালানোর পূর্বে অবশ্যই বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স সঙ্গে রাখবেন। গাড়ির মালিকরা গাড়িতে সমস্ত কাগজপত্র আপডেট রাখবেন। কোনো অবস্থায় ফিটনেস বিহীন ও বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত গাড়ি রাস্তায় নামানো যাবে না বলে ডিএমপি’র পক্ষ থেকে বলা হয়।
পথচারীরা রাস্তা পারাপারে জেব্রা ক্রসিং, ফুটওভার ব্রিজ ও আন্ডারপাশ ব্যবহার করতে ডিএমপি’র পক্ষ থেকে বলা হয়। এর ব্যত্যয় ঘটলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হবে বলে ডিএমপি সূত্র জানায়। বাসস

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here