পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে পাকিস্তান সফরে শ্রীলঙ্কা

এক দশক পর দেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজ আয়োজন করতে যাচ্ছে পাকিস্তান। আগামী ডিসেম্বরেই শ্রীলঙ্কার সঙ্গে লাল বলের লড়াইয়ে নামতে যাচ্ছে তারা।

সিরিজটি সামনে রেখে পুরো শক্তির টেস্ট দলই ঘোষণা করেছে লঙ্কানরা। দিমুথ করুনারত্নেকে নেতৃত্বে রেখে ঘোষিত ১৬ জনের দলে রয়েছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ও দিনেশ চান্দিমাল।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অধীনে দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে পাকিস্তানের উদ্দেশে শ্রীলঙ্কান দল দেশ ছাড়বে ৮ ডিসেম্বর।

তিন মাসও হয়নি সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে পাকিস্তান সফরে গিয়ে শ্রীলঙ্কা। যদিও দশ জন হাই-প্রোফাইল ক্রিকেটার সে সফর থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়ে ছিলেন।

রাওয়ালপিন্ডিতে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার প্রথম টেস্ট শুরু ১১ ডিসেম্বর। ১৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে করাচিতে।

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর দেশের মাটিতে কোনো টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারেনি পাকিস্তান। হোম সিরিজ তারা আয়োজন করেছে নিরপেক্ষ ভেন্যু সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

এ সিরিজটিও অক্টোবরে আমিরাতেই খেলার কথা ছিল। পরে নিরাপত্তার আশ্বাস দিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) রাজি করে শ্রীলঙ্কাকে।

আগস্টে ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টের দলটাই মূলত রেখে দিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)। দলে পরিবর্তন এনেছে মাত্র একটি। আকিলা ধনাঞ্জয়ার বদলে জায়গা পেয়েছেন কাসুন রাজিথা।

বর্তমান দলের সুরঙ্গা লাকমলও ২০০৯ সালে পাকিস্তান সফরে থাকা লঙ্কান দলের সদস্য ছিলেন। হামলায় সামান্য আহতও হয়ে ছিলেন তিনি।

শ্রীলঙ্কান টিম: দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), ওশাদা ফার্নান্ডো, লাসিথ এম্বুলদেনিয়া, লাহিরু থিরিমান্নে, দিনেশ চান্দিমাল, সুরঙ্গা লাকমল, কুশল মেন্ডিস, দিলরুয়ান পেরেরা, লাহিরু কুমারা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, বিশ্ব ফার্নান্ডো, কুশল পেরেরা, লক্ষ্ণণ সান্দাকান, কাসুন রাজিথা ও নিরোশান ডিকভেলা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here