বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার ট্রলারডুবি, ১৩ জেলে উদ্ধার

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মংচিন থান,তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি :: বরগুনার তালতলীর উপজেলার আশার চর থেকে ৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্বে এফবি মালেকা নামের ১টি মাছ ধরা ট্রলার ১৩ জন জেলেসহ সাগরে আকস্মিক ঝড়েরর কবলে পরে ডুবে যায়। অন্য একটি ট্রলারের সহায়তায় জেলেদের ডুবে যাওয়ার ৮ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হলেও জাল ট্রলার উদ্ধার করা যায়নি। ডুবে যাওয়া ট্রলারের মাঝি শাহীন খলিফা জানান, তালতলীর নিন্দ্রা সক্ষিনার গ্রামের আলমগীর খলিফার ট্রলাার নিয়ে আমরা ১৩ জন জেলে গত বৃহস্পতিবার সাগরের মাছ ধরতে যাই। মাছ ধরা শেষে মাছ বোঝাই ট্রলারটি নিয়ে রবিবার গভীর রাতে আমরা তালতলীর দিকে কিনারে ফিরছিলাম।

এসময় বাইসদার বয়া নামক স্থানে আসা মাত্র আকস্মিক ঝড়েরর কবলে পড়লে ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারটি তখন তালতলীর আশার চর থেকে ৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্বের দূরত্বে অবস্থান করছিল। ট্রলারটি ডুবে যাওয়ার ৬ ঘন্টা পর সোমবার সকাল ৬টার দিকে অন্য আরেকটি মাছ ধরা ট্রলালের সহায়তায় বাইসদার বয়া নামক স্থান থেকে জেলেদের উদ্ধার করা হয়। তবে জাল ও ট্রলার পাওয়া যায়নি। জেলেরা জানান, আমরা সাগরের পানিতে যে সামন্য বয়া এবং অন্যান্য ভাসমান সামগ্রী ছিল থা ধরে ৮ ঘন্টা পানির সাথে লড়াই করি। পরে অন্য একটি ট্রলারের জেলেরা আমাদের দেখতে পেয়ে তারা আমাদের উদ্ধার করে কিনারে নিয়ে আসে। ডুবে যওয়া ট্রলারের জেলেরা সবাই তালতলী উপজেলার নিন্দ্রা ও সখিনা গ্রামের বাসিন্দা। ডুবে যাওয়া ট্রলারের জেলেদের গতকাল সোমবার সকালে তালতলী নিয়ে আসা হয়। জেলেরা সবাই এখন সুস্থ আছে। ডুবে যাওয়া ট্রলারের মালিক আলমগীর খলিফা জেলেদের ডুবে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জেলেদের জীবিত উদ্ধার করা হলেও জাল ও ট্রলার উদ্ধার করা যায়নি। ট্রলার ও জালের আনুমানিক মূল্য প্রায় ২৫ লাখ টাকা। ট্রলার ডুবির ঘটনায় প্রায় ২ লক্ষ টাকার মাছ ও সাগরে ভেসে গেছে।


Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here