বাবার সাথে ছিলো অভিমান, অকালে ঝরে গেল মেধাবী প্রাণ

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

তানবির আলম খান, বশেমুরবিপ্রবিঃ আরেকটি অকাল মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো। ঝরে গেল তাজা প্রাণ! বাবার প্রতি অভিমান করে নিজেকে শেষ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের এক ছাত্রী।

ঐ শিক্ষার্থীর নাম সাদিয়া কুতুব নিশাত। তাঁর বাড়ি গোপালগঞ্জ শহরের চাঁদমারি। গতকাল (১০ জুন) দুপুরের দিকে ঘটে এই ঘটনা। সাদিয়ার প্রতিবেশী এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী জানায়, “ক্যারম বোর্ড খেলছিলো চার ভাইবোন। ওর বাবা রাগ করে বলেছিলো, তুমি ছোটোদের একটু ছাড় দিয়ে খেলতে পারো তো! এই বিষয়টি নিয়ে পরে গলায় দড়ি দেয়।” সাদিয়া কুতুবের শিক্ষক সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি জনাব মজনুর রশিদ জানান, ” আমরা শিক্ষার্থীদের থেকে ও বিভিন্নভাবে জেনেছি ঐ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর খবর। উপাচার্য স্যারও এই বিষয়ে অবগত হয়েছেন।

” গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জনাব মনিরুল আত্মহত্যার ঘটনা নিশ্চিত করে মুঠোফোনে বলেন, ” সাদিয়া নামের ঐ শিক্ষার্থী আত্নহত্যা করেছে আনুমানিক ১১-১২ টার মধ্যে। পুলিশ লাশ বুঝে পেয়েছে ২ টার দিকে। পড়াশুনা ও পারিবারিক বিষয়ে বাবার সাথে অভিমান করেছিলো বলে জানা গেছে।”


Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here