বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছেন দুর্গাদাসের সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা দিলীপ লাহিড়ী!

Share It
  • 236
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    236
    Shares

রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার ইলিশকোল গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা দুর্গাদাস লাহিড়ীর সন্তান দিলীপ লাহিড়ী টাকার অভাবে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। তাঁর পরিবার চিকিৎসা সহযোগিতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন জানিয়েছেন।

স্বাধীনতা যুদ্ধে দুর্গাদাস লাহিড়ী ওরফে ডি ডি লাহিড়ী মেজর গিয়াসের অধীনে ভারতের মূর্শিদাবাদ ক্যাম্পের দায়িত্বে ছিলেন। তার সেই অবদানের কথা স্বাধীনতার দলিলের ৩য় খন্ডে ২০ নম্বর সিরিয়ালে লিপিবদ্ধ রয়েছে। উনি ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশের ডিএসপি, সারদা পুলিশ একাডেমির প্রিন্সিপাল। উনি বেশ কয়েকটি আইনের বই লিখেছিলেন। দুর্গাদাসকে বাংলাদেশ পুলিশের ship of law বলা হতো। একজন সৎ পুলিশ অফিসার হিসাবে পুলিশে উনার বেশ সুনাম ছিল। তিনি অন্যায়ের সাথে কোন দিন আপস করেননি। সেই জন্য ১৯৭৮ সালে জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় থাকাকালে দুর্গাদাসকে পটুয়াখালীতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের পদ থেকে চাকুরীচ্যুত করা হয়। তখন তার ৩ টি বিবাহ যোগ্য কন্যা ঘরে, ৪ টি ছেলে ছোট ছোট, স্ত্রীর ক্যান্সার। সে এক দুর্বিষহ অবস্থার মধ্য দিয়ে জীবন অতিবাহিত করেছেন তিনি। পরবর্তীতে স্ত্রীর মৃত্যু হয়, নিজেও স্ট্রোক করে মারা যান।

টাকার অভাবে মুক্তিযোদ্ধা দুর্গাদাস লাহিড়ীর ছেলেগুলো পড়ালেখা করতে পারেনি। আজ তার মেঝ ছেলে দিলীপ লাহিড়ী হার্টের জটিল রোগ নিয়ে ফরিদপুর হার্ট ফাউন্ডেশনে ভর্তি। কিছু দিন পূর্বে খুব অসুস্থ হলে তাকে ঢাকায় মিরপুর হার্ট ফাউন্ডেশনে ভর্তি করা হয়। এনজিওগ্রাম করে দেখা যায় তার রক্ত নালীতে ৪ টি ব্লক। আত্মীয় পরিজনের সাহায্য সহোযোগিতায় ১ টি রিং পড়ানো হয়েছে। তখন চিকিৎসকেরা বলেছেন উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে দেশের বাইরে নিতে। কিন্তু টাকার অভাবে ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে দিলীপ লাহিড়ী। রাষ্ট্রের প্রতি মুক্তিযোদ্ধা পিতা দুর্গাদাসের অবদানের কথা বিবেচনায় নিয়ে দিলিপ লাহিড়ীর পরিবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছেন।


Share It
  • 236
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    236
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here