ভাষা সৈনিক অ্যাডভোকেট আশরাফ হোসেন আর নেই

Share It
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    20
    Shares

জামালপুরের বকশীগঞ্জে পাখিমারা সরকারবাড়ীর মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষানুরাগী ও সাবেক পাকিস্তান প্রাদেশিক আইন পরিষদের সদস্য বিশিষ্ট আইনজীবী ভাষা সৈনিক আশরাফ হোসেন (৮৩) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টা ১৫ মিনিটে সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর খাজা ইউনুস আলী ম্যাডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে ক্যানসার রোগে আক্রান্ত ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, চার ছেলে এবং একটি কন্যা সন্তান রেখে গেছেন।

অ্যাডভোকেট আশরাফ হোসেন জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার পাখিমারা গ্রামের সরকারবাড়ীর এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারে ১৯৩৭ সালের ২ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম মরহুম মকবুল হোসেন সরকার। মাতা মরহুম মোছা. আলীমুন্নেছা। আশরাফ হোসেন চারভাই ও চারবোনের মধ্যে তিনি সবার বড় ছিলেন।

আশরাফ হোসেন ১৯৫৮ সালে জামালপুর জিলা স্কুল থেকে এসএসসি পাস করে জামালপুর আশেক মাহমুদ কলেজে ভর্তি হন। ১৯৬০ সালে আইএ এবং ১৯৬২ সালে বিএ পাস করে ১৯৬৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন শাস্ত্রের এলএলবি ডিগ্রি লাভ করেন। এলএলবি পাস করে ময়মনসিংহ বারে যোগ দিয়ে আইন পেশা শুরু করেন।

১৯৭০ সালের নির্বাচনে ময়মনসিংহ-১ (বর্তমানে জামালপুর-১) থেকে নির্বাচিত প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য (এমপিএ) নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে গণপরিষদ সদস্য। বাংলাদেশের সংবিধান অনুমোদনকারীদের অন্যতম। জামালপুর জেলা হিসেবে ঘোষিত হওয়ার পর প্রথম পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও ১৯৬৮-১৯৭৯ সাল পর্যন্ত তিনি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জামালপুর মহকুমার সাবেক সহ-সভাপতি এবং ১৯৬৮-১৯৭৯ পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার সাবেক সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

  • সাংবাদিক নিয়োগ : দৈনিক মুক্ত আলো

  • Application Form - আবেদন ফরমটি যথাযথভাবে পূরণ করে নিচের সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন। আবেদন করার আগে নিচে দেওয়া তথ্য গুলি মনোযোগ সহকারে পড়ে নিন।০১৮২৯৪২৪৭৭১ বিকাশ পার্সোনাল, এই নাম্বারে তিনশত টাকা (আবেদন ফি অফেরত যোগ্য) সেন্ড মানি করে নিচে ট্রানজেকশন আইডি উল্লেখ করুন। (অন্যথায় আপনার আবেদন গৃহীত হবে না,তাই আবেদন করার আগে অবশ্যই সেন্ড মানি করে নিবেন)
  • নির্দেশনার টি ভালভাবে পড়ুন

    সাংবাদিক নিয়োগ : দৈনিক মুক্ত আলো জেলা-উপজেলা ও কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে।সারাদেশ থেকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান / নাতী-নাতনীদের ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রকৃত নাগরিকদের আবেদন করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হল – আগ্রহীরা আগামী (৩০/০৯/২০২০ইং) এর মধ্যে আবেদন জমা দিন জমা দিনঃ ০১৮২৯৪২৪৭৭১ বিকাশ পার্সোনাল, এই নাম্বারে তিনশত টাকা (আবেদন ফি অফেরত যোগ্য) সেন্ড মানি করে নিচে ট্রানজেকশন আইডি উল্লেখ করেন। (অন্যথায় আপনার আবেদন গৃহীত হবে না,তাই আবেদন করার আগে অবশ্যই সেন্ড মানি করে নিবেন) সবার আগে দেশ ও বিদেশের সব খবরের পিছনের খবর জানতে ও জানাতে দেশের প্রতিটি জেলায় সংবাদ প্রতিনিধি,থানা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি,বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি,ব্যুরো চিফ,ও গুরুত্বপূর্ণ বিটে স্টাফ রিপোর্টার,এবং স্কুল,কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুরুষ/মহিলা সেচ্ছাসেবী শিক্ষানবিশ সাংবাদিক নিয়োগ করা হবে । প্রর্থীর যোগ্যতা: # শিক্ষাগত যোগ্যতা কমপক্ষে এইচ,এস,সি.অথবা সমমান হতে হবে। # প্রার্থীর নিজেস্ব ল্যাপটপ/ কম্পিউটার থাকলে ( অগ্রাধিকার দেওয়া হবে) # এম,এস,ওয়ার্ডে বাংলায় টাইপিং জানা থাকলে( অগ্রাধিকার দেওয়া হবে) # ক্যামেরা থাকালে( অগ্রাধিকার দেওয়া হবে) # কোন কপি রাইট সংবাদ প্রেরন করা যাবে না। # প্রেরিত সংবাদের সহিত সংবাদ সর্ম্পকিত ছবি/ভিডিও পাঠানোর চেষ্টা করতে হবে।#অভিজ্ঞ প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। #প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও নাতী-নাতনীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি আপলোড করুন। জাতীয় পরিচয় পত্রের ছবি আপলোড করুন। শিক্ষার্থীদের জন্য কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ডের ছবি আপলোড করুন। সর্বশেষ শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেটের ছবি আপলোড করুন। । অভিজ্ঞতার ক্ষেত্রে: অভিজ্ঞতা সনদের ছবি আপলোড করুন। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যের ক্ষেত্রে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সকল কাগজপত্র ছবি আপলোড করুন। নির্বাচিত সংবাদ কর্মীদেরকে যোগ্যতা অনুযায়ী বিশেষ প্রক্রিয়ায় সম্মানী প্রদান করবে । যোগাযোগ: Phone: 01829424771 E-mail: doinikmuktoalo.editor@gmail.com Facebook: https://www.facebook.com/doinikmuktoalo.bd
  • আবেদন ফরম - apply now

  •  

Share It
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    20
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here