বহুল প্রতীক্ষিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। উত্তর হ্যাম্পশায়ারের দুটি ছোট শহর ঐতিহ্যগতভাবে মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) মধ্যরাতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

এরই মধ্যে নিউইয়র্ক, নিউজার্সি, ভার্জিনিয়া, নর্থ ক্যারোলাইনাতেও আনুষ্ঠানিকভাবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। মার্কিনিরা বেছে নেবেন তাদের ৪৬তম প্রেসিডেন্টকে। ভোর থেকেই নির্বাচনী কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি লক্ষ করা যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।
এর মধ্যেই প্রায় ১০ কোটি ভোটার আগাম ভোট দিয়েছেন, যা গত একশো বছরের মধ্যে আগাম ভোটের ক্ষেত্রে একটা রেকর্ড।  যারা এখনও ভোট দেন নি, আজ তাদের ভোট দেবার শেষ সুযোগ। দেশজুড়ে চালানো জরিপে দেখা যাচ্ছে যে, জো বাইডেন বেশ এগিয়ে রয়েছেন। কিন্তু যেসব রাজ্যের ভোটের ফলাফলে নির্বাচনের ফলাফল নির্ভর করতে পারে, সেসব রাজ্যে উভয়ের অবস্থান বেশ কাছাকাছি।

এরই মধ্যে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আরও চারটি প্রতিদ্বন্দ্বিতা পূর্ণ রাজ্যে প্রচারণা চালিয়েছেন। নর্থ ক্যারোলিনা, স্ক্র্যানটন, পেনসিলভানিয়ায় প্রচারণা চালান। সেখানে তিনি ঘোষণা দিয়েছেন, আগামী বছর হবে সবচেয়ে ভালো অর্থনীতির বছর।

পেনসিলভানিয়াতে প্রচারণা চালিয়েছেন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেনও। ওহাইয়োতে প্রচারণায় বাইডেন বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের ব্যাগ গুছিয়ে চলে যাবার সময় হয়েছে।

এদিকে নির্বাচনী রাতে ১০ হাজারের বেশি বিক্ষোভকারী ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার প্লাজা এবং হোয়াইট হাউজের কাছের একটি পার্কে বিক্ষোভ করবেন বলে জানা যাচ্ছে। বাইডেন জিতে গেলে  ট্রাম্প ফলাফল প্রত্যাখান করলে যে কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় দেশজুড়ে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here