আকতার হোসেন, মিরসরাই প্রতিনিধি : মিরসরাইয়ে প্রেমের টানে দু’সন্তান রেখে প্রবাসীর স্ত্রী উধাওয়ের ঘটনা ঘটেছে।
উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের উওর তাজপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
উধাও হয়ে যাওয়া প্রবাসীর স্ত্রী ও গৃহবধূর নাম পূর্নিমা শর্মা (২৩)।
এ ঘটনায় পূর্ণিমা শর্মার শ্বশুর জনার্দন শর্মা বাদী হয়ে গত ২৯ অক্টোবর জোরারগঞ্জ থানায় নিখোঁজ ডায়েরি (নং-১৩৭১) দায়ের করেন।
জানা গেছে, উপজেলার জোরারগঞ্জ  ইউনিয়নের তাজপুর গ্রামের জনার্দন শর্মার ছেলে ইন্দ্রজিত শৰ্মার সঙ্গে  করেরহাট ইউনিয়নের জয়পুর পূর্ব জোয়ার গ্রামের শুভপুর বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় পূর্ণিমা শর্মা’র পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়।
দাম্পত্য জীবনে তাদের পান্ত শর্মা (৫) ও প্রভাত শর্মা (৩) নামের দুই ছেলে রয়েছে। ইন্দ্রজিত শৰ্মা জীবিকার প্রয়োজনে দুবাই প্রবাসে চলে যান। প্রবাসে যাওয়ার পর থেকে পূর্ণিমা শর্মার সঙ্গে করেরহাট ইউনিয়ন জয়পুর পূর্ব জোয়ার গ্রামের শুভপুর বাসষ্ট্যান্ড এলাকার স্বপন দে’র ছেলে শুভ দে’র পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই সম্পর্কের জের ধরেই শুভর হাত ধরে গত ২৮ অক্টোবর রাতে পূর্ণিমা পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে জনার্দন শর্মা বলেন, আমার ছেলের বৌ পূর্ণিমা শর্মাকে খোঁজাখুজি করে না পেয়ে নিখোঁজ ডায়েরি করি এবং তার পরের দিন (৩০ অক্টোবর) শুভকে প্রধান করে একটি অভিযোগ দায়ের করি। কারণ শুভ’র প্ররোচনা ও প্রলোভনে পূর্ণিমা দুই সন্তান রেখে ৬ ভরি স্বর্ণালংকার, আলমারিতে থাকা ৬০ হাজার টাকা, করেরহাট জনতা ব্যাংকে থাকা ৯০ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ৫ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা ও মালামাল নিয়ে শুভ’র সাথে উধাও হয়ে যায়।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে জোরারগঞ্জ থানার এসআই সুবল চন্দ্র সিংহ বলেন, শুভ নামের একটি ছেলের সাথে পরকীয়া করে প্রবাসীর স্ত্রী দুই সন্তানের জননী পূর্ণিমা শর্মার উধাও হয়ে যাওয়ার বিষয়ে থানায় নিখোঁজ ডায়েরি এবং  অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এবিষয়ে তদন্ত চলছে।
এদিকে পরকীয়া করে প্রবাসীর স্ত্রী দুই সন্তানের জননী উধাও হওয়ার ঘটনায় এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here