মুক্তিযুদ্ধের লক্ষ্য থেকে রাষ্ট্র দূরে সরে গেছে’ ‘মুক্তিযুদ্ধের অর্জন আজ বিলীন হতে চলেছে

৩৯তম বিসিএসে মুক্তিযোদ্ধা কোটা: সুপারিশপ্রাপ্ত সবাইকেই ছাড়পত্র দিচ্ছে জামুকা
Share It
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    17
    Shares

‘মুক্তিযুদ্ধের অর্জন আজ বিলীন হতে চলেছে। পাকিস্তান আমলে ছিল ২২ পরিবারের শোষণ। এখন চার হাজার পরিবার দেশকে লুটে খাচ্ছে। বৈষম্য আরও বেড়েছে। অথচ এ দেশে গণযুদ্ধ হয়েছিল সাম্য প্রতিষ্ঠার জন্য। যে বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেই লক্ষ্য থেকে রাষ্ট্র অনেক দূরে সরে গেছে।’
গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক স্মরণ সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকারের উপদেষ্টা কমরেড মণি সিংহ, অধ্যাপক মোজাফ্‌ফর আহমদ, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ ও সাইফুদ্দিন আহম্মেদ মানিক স্মরণে এই সভার আয়োজন করে একাত্তরের বিশেষ গেরিলা বাহিনী। সভায় বক্তারা এই জাতীয় চার নেতার মুক্তিযুদ্ধে অবদানের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবি জানান।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ঐক্য ন্যাপ সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেন, যে বৈষম্যহীন সাম্যবাদী সমাজের জন্য আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম, সেই অর্জন আজ বিলীন। এখন সরকার গঠন করতে ভোট  লাগে না। জনগণের অধিকার হরণ করা হয়েছে। দেশকে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে ফেরাতে মণি সিংহ-ফরহাদের পথে লড়াই করতে হবে।

মণি সিংহের সন্তান ডা. দীবালোক সিংহ পিতার জীবন সংগ্রামের কথা উল্লেখ করে বলেন, মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। সমাজের নিপীড়িত জনগণের মুক্তির জন্য মণি সিংহ সারাজীবন লড়াই করে গেছেন।

ডা. ফৌজিয়া মুসলিম বলেন, আজ সমাজ বিপ্লবীদের মাঝে হতাশার সুর। তাদের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস ফিকে হয়ে এসেছে। মণি সিংহ, মোজাফ্‌ফর, ফরহাদ, মানিকেরা একে অপরের সংগ্রামকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। কিন্তু সেভাবে তাদের উত্তরসূরি তৈরি হয়নি।

সভায় আরও বক্তব্য দেন কামরুল হাসান খান, আব্দুল গণি, ফজলুল হক সরকার, আব্দুল হালিম চৌধুরী প্রমুখ।


Share It
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    17
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here