মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে নেতারা

চিতলমারীতে এক মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে তার বাম হাত স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী বিএনপি নেতা ভেঙ্গে দিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করার পর চরম হুমকির মূখে ওই মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। বুধবার দুপুরে সুবিচারের দাবিতে এসব অভিযোগ তুলে ধরে চিতলমারী উপজেলা প্রেস কাবে ওই মুক্তিযোদ্ধার ছেলে ও মামলার বাদী মোঃ বিপ্লব মোল্লা এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে বিপ্লব মোল্লা জানান, উপজেলার বড়বাড়িয়া গ্রামে তাদের বসবাস। তার বাবা মোঃ ইসহাক মোল্লা একাত্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধা (৮০)। সেই সাথে তিনি বড়বাড়িয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডে সহকারি কমান্ডার। গত ৩ সেপ্টেম্বর তার পিতা মোঃ ইসহাক মোল্লাকে প্রতিবেশি প্রভাবশালী বিএনপি নেতা ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী মোঃ শামীম মোল্লা, মোঃ মোতাহার মোল্লা, মোঃ আবুল কালামসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৮/১০ জন সন্ত্রাসী লোক পরিকল্পিত ভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। হামলায় তার পিতার বাম হাত ভেঙে যায় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারত্মক ভাবে জখম হয়। এ হামলার পর তার পিতাকে প্রথমে চিতলমারী হাসপাতালে নিয়ে আসলে তার অবস্থা আরো খারাপ হওয়ায় ওই দিনই উন্নত চিকিৎসার জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে ৪ সেপ্টেম্বর চিতলমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর আসামীরা জামিনে মুক্তি পেয়ে আবারও তাদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি-ধমকি প্রদান করছে। বর্তমানে তারা পরিবারসহ পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

তিনি এই ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনা সাংবাদিকদের লেখনির মাধ্যমে প্রশাসন ও সরকারের কাছে সুবিচারের দাবি জা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!