মুজিব শতবর্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধাদের নাতি-নাতনীদের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন

Share It
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    13
    Shares

জবি প্রতিনিধিঃ বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার বর্ধিত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বুধবার (২২ জুলাই,২০২০) বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার চেয়ারম্যান মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ ও মহাসচিব সৈয়দ সিয়াম আহমেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ বর্ধিত কমিটির ঘোষণা দেয়া হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদ, বাংলাদেশের একমাত্র মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনীদের স্বতন্ত্র সংগঠন। সারাদেশব্যাপী সংগঠনটি কমিটি দিয়ে মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনীদের সংঘবদ্ধ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনীদের নিয়ে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়।
কমিটিটিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বরত রয়েছেন মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ ও মহাসচিব সৈয়দ সিয়াম আহমদ। তাদেরককে ০৩/০৯/২০১৯ কেন্দ্রীয় কমিটির থেকে অনুমোদন দেয় কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান মোঃ খালেদুজ্জামান ফারছিম ও মহাসচিব মোঃ মিরাজ মিয়া। কমিটি গঠনের প্রায় ১০ মাস পর এ বর্ধিত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান মোঃ খালেদুজ্জামান ফারছিম  সবাইকে উৎসাহ নিয়ে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করতে বলেন।
কমিটিতে অন্যান্যদের মধ্যে ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন মালিহা আফরিন, দেওয়ান শামীম আল মামুন, জান্নাতুল হাবিবা অপি, ফাহমিদা আক্তার রিতু, মোঃ ইসমাইল হোসেন, আবদুল্লাহ আল মামুন সৌমিক, আফিয়া মোবাশশির খায়ের, সাজ্জাদ হোসাইন শাকির ও সাদিয়া আকতার তৃষা।যুগ্ম মহাসচিব হিসেবে রয়েছেন কাউকাব আহাম্মদ চৌধুরী, জেবুননেসা জামান, এস. এম সাদাদ, স্মিতা জান্নাত, তানজিনা আক্তার, মেহজবিন আক্তার, রাফিয়া সুলতানা, সুমাইয়া আহমেদ, পপি পাল ও মোঃ মিনহাজুল আলম। সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন তাসপিয়া ইসলাম। সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন হামিদুল হক শিহাব, লিমা আক্তার, সৈয়দা নিশাত তাসনিম, ফাতেমা তুজ জােহরা মীম, তমা ইসলাম, ফারহান তানভীর সাকিব, সাদিয়া ইসলাম সাদিয়া ও আহমেদ-আল সাকিব। অর্থ সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আহনাফ তাহমিদ ফাইয়াজ। সহ-অর্থ সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন মাহমুদুল সাসান (রাহুল), শেখ শাহরিয়ার হোসেন, আফরোজা আক্তার, সুরঞ্জিত রায়, মার্জিয়া মেহজাবিন মৌরী ও জান্নাতুল ফেরদৌস। সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আব্দুল্লাহ আলম নূর। সহ-সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন অপূর্ব মন্ডল, মোঃ মেহেদি হাসান, মুক্তি সাইয়েদা সুলতানা ও রুনা আফসানা। ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন নুসরাত জাকিয়া সাফা। সহ-ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন তাসনিমুল হাসান রাসেদ, সোহেল মাহমুদ সাগর, সানজিদা আলম ও রাহি আক্তার বুশরা। ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন হিরা সুলতানা। সহ-ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আসমা উল হুসনা অর্থী, এস এম তাসিন, তানিয়া তাফাননুম ইশিকা ও আব্দুল হক। শ্রম ও জনশক্তি সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন সাদিয়া ইসলাম সুধা। সহ-শ্রম ও জনশক্তি সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন মোসাঃ তাহমিনা আক্তার, মোছাঃ জান্নাতুল ফেরদৌস, মাহেজাবিন ইসলাম ও নিপা আক্তার। দপ্তর সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আন্জুমান আরা। সহ-দপ্তর সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আরমিন আক্তার, তানজিনা ইসলাম প্রীতি ও ফারজানা আকতার রিমি। তথ্য ও প্রচার সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন মোঃ আমানুল্লাহ আমান। সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন আবির মাহমুদ, খাইরুল হাসান আকাশ ও ইসরাত জাহান তুষি। শিক্ষা পাঠাগার ও মিলনায়তন সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন কানিজ ফারজানা সূচনা। সহ-শিক্ষা পাঠাগার ও মিলনায়তন সম্পাদক হিসেবে রয়েছেন কানিজ ফারজানা সূচনা, মোঃ গোলাম রাব্বানী, আফরা আনিকা মোঃ  আশিকুর রহমান আশিক। কার্যকরী সদস্য হিসেবে রয়েছেন মোঃ মেহেদী হাসান ও জিসানুর  ইসলাম।
উক্ত কমিটির উপদেষ্টা প্যানেলে রয়েছেন ইমরুল কায়েস নিয়াজ (সাবেক সহ সম্পাদক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ), মোঃ আসাদুজ্জামান রুবেল (সভাপতি, ব্রাক্ষ্মনবাড়িয়া জেলা ছাত্রকল্যাণ পরিষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং সাবেক সভাপতি, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ), শাহরুখ আলম শোভন (সাধারণ সম্পাদক, গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রকল্যাণ পরিষদ ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ), নাহিদ হাসান ফাহিম (জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ), মোফাজ্জল হক ভূইয়া
(সাধারণ সম্পাদক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যারয়স্থ কুমিল্লা জেলা ছাত্র কল্যাণ সংসদ ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ), শৈশব মাহমুদ (সভাপতি, কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রকল্যাণ পরিষদ জ.বি. ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ)।
সংগঠনটির চেয়ারম্যান মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদ বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনীদের একমাত্র স্বতন্ত্র সংগঠন। সারাদেশে মুক্তিযোদ্ধাদের নাতি-নাতনীদের সংঘবদ্ধ করে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কল্যাণে কাজ করা ও মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহ্য ধরে রাখাই এর মূল কাজ। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে কেন্দ্রীয় থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি দেয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সকলকে একসঙ্গে  নিয়ে নতুন কিছুর প্রত্যাশায় এগিয়ে যাবো। মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ধুদ্ধ করে দেশব্যাপী ছড়িয়ে দিব ইনশাল্লাহ। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।
মহাসচিব সৈয়দ সিয়াম আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে মনে ধারণ করে সকলকে একসঙ্গে নিয়ে কাজ করে এগিয়ে যেতে চাই। নিজ জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।

Share It
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    13
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here