যশোর প্রতিনিধি: যশোরে বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে এসে দিনাজপুরের এক নারী (২০) একাধিকবার ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শামীমকে আটক করা হয়েছে। তিনি যশোর শহরের বারান্দীপাড়া বউ বাজার এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ভুক্তভোগীকে আদালতে সোপর্দ করলে তার ২২ ধারার জবানবন্দি গ্রহণ করা হয়েছে। অক্টোবর গভীর রাতে করা মামলায় ভুক্তভোগী উল্লেখ করেছেন, দিনাজপুর জেলার বাসিন্দা তিনি। গত ২২ অক্টোবর তিনি দিনাজপুর থেকে যশোর শহরের বারান্দীপাড়া বউ বাজার এলাকায় বান্ধবী মরিয়মের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। এখানে বান্ধবী মরিয়মের চাচাতো ভাই মানিকের সাথে পরিচয় হয়। প্রথম দেখাতেই মানিক বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তাকে ফুসলাতে থাকে। এক পর্যায়ে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। পরের দিন ২৩ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় মানিক ও তার মা বাবা তাকে যশোরের একটি অফিসে নিয়ে যায়। তাকে দিয়ে একটি কাগজে স্বাক্ষর করায়। ২৩ অক্টোবর রাত ১০ থেকে পরের দিন ২৪ অক্টোবর সকাল ৭ টা পর্যন্ত তাকে মানিক একাধিকবার ধর্ষণ করে। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। অসুস্থ হলে তার সাথে মানিক খারাপ আচরণ ও মারধোর পর্যন্ত করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। তাকে বিয়ে বা সংসার করবে না বলে জানিয়ে দেয়। এরপর তিনি মানিকের এক আত্মীয়র কাছে আশ্রয় নেন। সেখান থেকে গোপনে যশোর জাস্টিস এন্ড কেয়ার অফিসে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ফোন করে ঘটনার বিষয় অবহিত করেন। জাস্টিস এন্ড কেয়ার অফিসের কর্মকর্তা শাওলী সুলতানা ও আসাফুর রহমান কোতোয়ালি থানার পুলিশের সহযোগিতায় মানিককে আটক করান। আটক মানিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে বিষয়টি স্বীকার করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here