লকডাউনে থাকা বশেমুরবিপ্রবির সোমালি শিক্ষার্থী আব্দুল্লার সাক্ষাৎকার 

Share It
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

তানবির খান, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ
লকডাউনে কেমন আছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে থাকা বিদেশি শিক্ষার্থীরা?  সম্প্রতি আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ হায়দারি বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবের কাছে জানিয়েছেন নিজের অভিজ্ঞতা। তিনি আফ্রিকার শিং খ্যাত সুদূর সোমালিয়া থেকে পড়তে এসেছেন বঙ্গবন্ধুর জন্মভূমিতে।  সাক্ষাৎকার নিয়েছেন দৈনিক মুক্ত আলোর প্রতিনিধি ও বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবের সাঃ  সম্পাদক মো. তানবির আলম খান।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ কেমন আছেন?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ ভালো আছি। আপনি কেমন আছেন?
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ ভালো আছি। সোমালিয়া ও সুদান থেকে বাকী যারা এসেছে তাদের খবর কি?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ আমরা সবাই সোমালিয়া থেকে এসেছি।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ আফ্রিকা মহাদেশের সকল শিক্ষার্থীই সোমালিয়া থেকে,  সুদানের কেউ নেই?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ না। সবাই সোমালিয়া থেকেই।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ আচ্ছা।  কতজন সোমালি  আছেন?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ ১৭ জন।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ সবাই শেখ রাসেল  হলে থাকেন?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ হ্যা। আমরা সবাই-ই এই হলে থাকি।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন  কেমন দেখাশোনা করছে? হল প্রাধ্যক্ষ স্যার আপনাদের কোন খোঁজখবর নিয়েছে?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ হ্যা। তাদের কাছ থেকে আন্তরিক সহযোগিতা পেয়েছি।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ লকডাউনের অবসর সময় কিভাবে কাটাচ্ছেন?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ সময় কাটাতে রান্না করি,  ইউটিউব ভিডিও বানাই।
প্রেসক্লাবঃ ভার্সিটির লেক পাড়, মাঠ কিংবা অন্যান্য যায়গায় ভিডিও বানাতে যান?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ হ্যা যাই ওখানে এবং  মাঝে মাঝে কিছু ইউটিউব ভিডিও বানাই।
প্রেসক্লাবঃ হলের  নিরাপত্তাকর্মীরা কোন বাধা দেয়? (বাহির হওয়ার ক্ষেত্রে)
আব্দুল্লা হায়দারিঃ না।  নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা লোকজনের কাছ থেকে কোন সমস্যা মনে হয়না। তারা আমাদের সম্মান করে। তাছাড়া,  উপাচার্য স্যারের পক্ষ থেকে কিছুটা মুক্ত (লকডাউন ফ্রী) থাকার নির্দেশনাও আছে।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ কোথায় কোথায় বের হন?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ আমরা বিশ্ববিদ্যালয় সীমানার ভিতরেই থাকছি।  কখনোই বাহিরে যাচ্ছি না।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ কেনাকাটা করতে বাহিরে যান না?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ একজন নিরাপত্তা কর্মী প্রয়োজনীয় কেনাকাটার কাজ করে দেন।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ কখনো কোন ধরনের নিরাপত্তাহীনতা বোধ করেন?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যথেষ্ট স্বস্তি বোধ করছি। আমাদের কোনো সমস্যা নাই।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ দিতে চান?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ আমি তাদের ধন্যবাদ দিতে চাই। কারণ তারা আমাদের আন্তরিকভাবে খোঁজখবর নেয়।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ সহপাঠী শিক্ষার্থীদের  নিয়ে কোন ভবিষ্যৎ প্রত্যাশা আছে?
আব্দুল্লা হায়দারিঃ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের কাছে প্রত্যাশা প্রত্যকেই বাসায় থাকবে, নিজেকে নিরাপদে রাখবে এবং সুস্বাস্থ্য নিয়ে আবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরবে।
বশেমুরবিপ্রবি প্রেসক্লাবঃ  ধন্যবাদ আপনাকে।
আব্দুল্লা হায়দারিঃ আপনাকেও স্বাগতম।

Share It
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here