লন্ডন-সিলেট যাত্রীদের কাস্টম ও ইমিগ্রেশন ঢাকায়, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা

Share It
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

বাংলাদেশ বিমানের লন্ডন-সিলেট যাত্রীদের যাদের ঢাকা থেকেই লাগেজ সংগ্রহ করতে হচ্ছে। ঢাকায় ইমিগ্রেশন ও কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিমানের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে সিলেটে পাঠানো হচ্ছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এমন সিদ্ধান্তে বিড়ম্বনায় পড়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিকরা। তাদের লাগেজ টেনে ডোমেস্টিক টার্মিনালে যেতে হচ্ছে যা করোনার ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। যদিও করোনা নিয়ন্ত্রণের জন্যই উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশনায় বিমান এমন নির্দেশনা জারি করেছে বলে জানিয়েছেন বিমান।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার জানান, করোনা পজিটিভ বা উপসর্গ রয়েছে এমন যাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন বা আইসোলেশনে পাঠাতে হয়। এটা নিশ্চিত করতেই উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্তে লন্ডন ফেরতদের সিলেট না পাঠিয়ে ঢাকায় ইমিগ্রেশন হচ্ছে। সঙ্গত কারণেই তাদের লাগেজও সিলেটে যাচ্ছে না, বরং ঢাকা থেকেই কালেক্ট করতে হচ্ছে।

বিমানের এই সিদ্ধান্তে সিলেট ও লন্ডনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এফবিসিসিআই’র পরিচালক খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, এই সিদ্ধান্তে বিমান যাত্রী হারাবে। কারণ লন্ডন থেকে সরাসরি সিলেট আসার জন্য যুক্তরাজ্যের সিলেট অঞ্চলের যাত্রীরা বিমান বেছে নেন। এক্ষেত্রে তারা অন্য এয়ারলাইন্সে আসবে। তিনি সিলেটে আইসোলেশন সেন্টার করে, তাদের ইমিগ্রেশন যেন সিলেটে হয় এবং লাগেজ যেন সিলেটই করা যায় সে সিদ্ধান্ত নেয়ার দাবি জানিয়েছেন।

ব্রিটিশ-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল হেলাল খান এই সিদ্ধান্তের  প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আমাদের পূর্ব পুরুষদের রক্ত ঘামে গড়া দেশের মানুষের সঙ্গে এই অমানবিকতার শেষ হোক! আসুন এ অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াই একসঙ্গে।


Share It
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here