শিমুলিয়ার দুই নম্বর ফেরিঘাটও এবার ভাঙনের মুখে

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পদ্মার তীব্র স্রোতে ভাঙনের মুখে রয়েছে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়ার দুই নম্বর ফেরিঘাটও। এতে দুই নম্বর ঘাট দিয়ে সীমিত আকারে ফেরি চলাচল করছে। এর আগে ভেঙে নদীতে বিলীন হয়ে গেছে তিন ও চার নম্বর ফেরিঘাট। এ অবস্থার জন্য বিআইডব্লিউটিএর অবহেলাকেই দায়ী করছেন যাত্রী ও চালকরা। কর্তৃপক্ষের গাফলতির কারণেই দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সাধারণ যাত্রীদের। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে প্রকৃতির দোহাই দিচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ।

গত ২৮ জুলাই পদ্মার তীব্র স্রোতের কারণে ভেঙে যায় শিমুলিয়া তিন নম্বর ঘাট। এরপর ৩১ জুলাই ভাঙন দেখা দেয় পদ্মা সেতুর কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে।

অব্যাহত ভাঙনে বাকি ফেরিঘাটও ঝুঁকিতে পড়ে যায়। এরইমধ্যে বিলীন হয়ে যায় চার নম্বর ঘাট। পাশের দুই নম্বর ও এক নম্বর ঘাটও ঝুঁকিতে পড়ে যায়। এ অবস্থায় ঘাটের অস্তিত্ব রক্ষা করাই কঠিন হয়ে পড়েছে।

ঘাট সংকটে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সাধারণ যাত্রীদের। সময়মতো কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় এধরণের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

ঘাট বিলীন হওয়ার ১০ দিনেও তিন নম্বর ঘাট পুনঃস্থাপন সম্ভব হয়নি। এজন্য বিআইডব্লিউটিএ এর অবহেলাকে দায়ী করলেও তা অস্বীকার করেছে কর্তৃপক্ষ।

বন্দর কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, জিও ব্যাগের প্রটেকশন ছিল, তাও পরবর্তীতে ঘাটটি ভেঙে গেছে। প্রাকৃতিক পরিস্থিতির সঙ্গে পারা যায় না।

শিমুলিয়ায় চারটি ফেরি ঘাট। ২৯ একরেরও বেশি জমির উপর অবস্থিত ঘাটের.অংশ এরইমধ্যে পদ্মার ভাঙনের বিলীন হয়ে গেছে।


Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here