শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া এবং জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আবদুর রহিমকে তাদের নিজস্ব পদ থেকে সরিয়ে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব শারমিন আক্তার জাহান স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই আদেশ জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক পদে ডা. তানভীর আহমেদকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজে নিয়মিত পরিচালক নিয়োগ না করা পর্যন্ত হাসপাতালের আর্থিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য উপপরিচালক  ডা. কে এম মামুন মোর্শেদকে আপাতত পরিচালকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ২৮ অক্টোবর জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক আবদুর রহিম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সব কর্মকর্তা কর্মচারীকে অফিস চলাকালীন সময়ে মোবাইল বন্ধ রাখা এবং মুসলিম ধর্মাবলম্বী পুরুষদের টাকনুর ওপরে এবং মহিলাদের হিজাবসহ টাকনুর নিচে কাপড় পরা এবং পর্দা মেনে চলার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আবদুর রহিমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়। তিন কার্যদিবসের মধ্যে পরিচালকের ব্যাখ্যা চাওয়া হলে তিনি পরে দুঃখ প্রকাশ করে নির্দেশনা বাতিল করেন।

অন্যদিকে, বেশি মূল্যে যন্ত্রপাতি ক্রয় করে সরকারের আর্থিক ক্ষতিসাধন করার প্রমাণ পাওয়ায় শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়াসহ তিন চিকিৎসককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। অভিযুক্ত অন্য চিকিৎসকরা হলেন- ডা. সৌমিত্র সরকার ও ডা. রতন দাস গুপ্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here