পরিমল চন্দ্র বসুনিয়া, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার অভিযোগে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় ৬টি ড্রেজার মেশিন ও সরঞ্জাম ধ্বংস করা হয়। এসময় তিন জনকে আটক করে দুুুই মাসের করে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) রাত আটটার দিকে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক সামিউল আমিন এ রায় প্রদান করেন। এর আগে বিকেলে উপজেলার সিন্দুর্না ইউনিয়নের ৫টি মেশিন ও সরঞ্জাম ধ্বংস করা হয় এবং সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের ধুবনি এলাকা থেকে বালু উত্তোলনের সময় ওই তিনজনকে আটক করে তাদের মেশিন ধ্বংস করা হয়। তবে আটক ৩ জন মেশিনের লেবার ছিলেন।

কারাদন্ড প্রাপ্তরা হলেন উপজেলার গেন্দুকুড়ি এলাকার আনসার উদ্দিনের ছেলে লিপন (৪০), পূর্ব নওদাবাস এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে মিজানুর (৩৫) ও বাড়াইপাড়া এলাকার দুলাল মিয়ার ছেলে আজিজার রহমান (৪০)।

জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার ধুবনি এলাকায় অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভাবে বোমা মেশিন দিয়ে নদী থেকে বালু উত্তোলন করার সময় ওই তিনজনকে আটক করে পুলিশ। পরে তাদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে তাদের প্রত্যেককে দুই মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন বিচারক। অন্য দিকে উপজেলার সিন্দুর্না এলাকায় নওদাবাস এলাকার সবুজ মিয়া, গোতামারী ইউনিয়নের মিস্টার, পাটিকাপাড়া ইউনিয়নের আবুল কালাম ও বাবু, গড্ডিমারী ইউনিয়নের শাহ আলম নামে ৫ জনের ৫টি অবৈধ ড্রেজার মেশিন ও সরঞ্জাম ভেঙ্গে ধ্বংস করা হয়।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক সামিউল আমিন জানান, অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের সময় ৬টি ড্রেজার মেশিন ও সরঞ্জাম ধ্বংস করা হয় এবং তিনজনকে আটক করে প্রত্যেকের দুই মাসের করে কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম জানান, কারাদন্ড প্রাপ্তদের বুধবার সকালে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here