করোনামুক্ত হলেন যশোরের চিকিৎসক দম্পতিসহ তিন জন

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোরশেদ আলম যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি। যশোরে চিকিৎসক দম্পতিসহ তিনজনকে শনিবার করোনামুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। তারা হলেন যশোর মেডিকেল কলেজের নাক কান গলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম, তার স্ত্রী যশোর বক্ষব্যাধি হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. শরিফা খাতুন ও যশোরের চৌগাছা উপজেলার বানরহুদা গ্রামের আলমগীর হোসেনের স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা জান্নাতি খাতুন (২৮)। বিষয়টি নিশ্চিত করে যশোরের সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীন জানান, তাদের তিনজনকে করোনামুক্ত হওয়ার ছাড়পত্র প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে তাদের জনকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এরআগে গত বৃহস্পতিবার যশোরের চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. আসিফ রায়হান সিভিল সার্জন কার্যালয়ে দায়িত্বরত তথ্য কর্মকর্তা মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ রেহেনেওয়াজ জানান, গত ২৫ এপ্রিল ডা. নাজমুল ইসলামের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।
২৬ তারিখের ফলাফলে তার করোনা শনাক্ত হয়। পরে গত ২ মে ও ৯ মে ফলাফলে তার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। গতার স্ত্রী ডা. শরিফা খাতুনের নমুনা ২৬ এপ্রিল পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। ফলাফল আসে ৫ মে। ফলাফলে তার করোনা পজেটিভ হয়। এরপর গত ৭ ও ৯ মে দুই বার পরীক্ষার ফলাফলে ডা. শরিফার নেগেটিভ হয়। চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. লুৎফুন্নাহার লাকি জানান, অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ জান্নাতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন গত ২০ এপ্রিল। তার উপসর্গ সন্দেহজনক হলে ২১ এপ্রিল নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। ফলাফলে প্রমাণ মেলে জান্নাতি করোনায় আক্রান্ত। গত ৫ ও ৯ মে দুইবারের পরীক্ষার ফলাফলে দেখা যায় তিনি করোনা নেগেটিভ।
ডা. লুৎফুন্নাহার লাকি আরো জানান, সুস্থ হওয়ার পর শনিবার তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গাইনী বিভাগের চিকিৎসকরা তার সিজারিয়ান অস্ত্রোপচার করবেন। যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন জানান, কোভিড-১৯ নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে ডা. নাজমুল ইসলাম, ডা. শরিফা খাতুন ও অন্তঃসত্ত্বা জান্নাতি খাতুন সুস্থ হওয়ার আগ পর্যন্ত হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

Share It
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here