ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় প্রস্তুতি চলছে ভোলায়

ভোলা জেলায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় প্রস্তুতি হিসাবে সব রাস্তা-বেরিবাধে স্বেচ্ছাসেবকদের প্রচার প্রচারণা ও মাইকিং চলছে। চরাঞ্চলের লোক-জনদের মূল ভুখন্ডে আনার জন্য নৌকা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভোলার সব রুটে লঞ্চ চলাচল এবং ভোলা-লক্ষ্মীপুর ও ভেদুরিয়া-লাহার হাট রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। জেলায় প্রশাসনের ৮ টি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু রয়েছে।

ওপরদিকে, জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম সিদ্দিক শুক্রবার সন্ধ্যার পর জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে জানান, দুর্যোগ মোকাবেলায় পর্যাপ্ত ত্রানের ব্যবস্থা আছে।সরকারি কোষাগার থেকে নগদ ১০ লাখ টাকা, ২০ মেট্রিক টন চাল এবং ২০০০ প্যকেট শুকনো খাবার প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে আরও ত্রাণ সামগ্রি আনা হবে। শনিবার দুপুর ১২ টার মধ্যে চরাঞ্চলের সব মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রে আনা হবে।

বিআইডব্লিউটিএ’র সহকারী পরিচালক মো. কামরুজ্জামান জানান, শুক্রবার বিকাল থেকে ভোলার সব রুটে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে সন্ধ্যার পর ভোলা থেকে ঢাকাগামী লঞ্চগুলো ছেড়ে গেছে। বিআইডব্লিউটিসি’র ভোলাস্থ ফেরি ইনচার্জ মো. এমরান জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভোলা-লক্ষ্মীপুর ও ভেদুরিয়া-লাহার হাট রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে পুরো ভোলায় কোথাও হালকা কোথাও মাঝারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। ভোলা সংলগ্ন মেঘনা তেতুলয়া নদী উত্তাল, সেই সঙ্গে বেড়েছে পানির উচ্চতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here