চ্যানেল ৭১’র বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর সংবাদ সম্মেলন

Share It
  • 171
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    171
    Shares

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড আয়োজিত আজ ৪ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে চ্যানেল ৭১ (একাত্তর) কর্তৃক বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের হেয় প্রতিপন্ন করে প্রচারিত সংবাদের প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মেহেদী হাসান। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, গত ২৭ অক্টোবর ২০১৯ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর ১৮তম প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে জাতীয় সংসদ ভবন দক্ষিণ প্লাজায় অনুষ্ঠিত কর্মসূচি নিয়ে চ্যানেল ৭১ “রাজাকারের টাকায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন”সহ বিভিন্ন শিরোনামে উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচারে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা ক্ষুব্ধ।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বন্ধকৃত গণমাধ্যম দিগন্ত টিভি, ইসলামি টিভি, সিএসবি টিভি সমূহের স্টাফ রিপোর্টার, আলোকচিত্রি আজ কে কোথায়? উক্ত টিভি চ্যানেল সমূহের জামায়াত শিবির সদস্যরা অন্যান্য টিভি চ্যানেলে বর্তমানে কর্মরত অবস্থায় জামায়াত-শিবির ও উগ্র প্রগতিশীল রূপধারী প্রতিক্রিয়াশীল চক্র মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ ও লালনকারীদের বিপক্ষে অবস্থান করে আজ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে অসম্মান/হেয় করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে, যার ধারাবাহিকতায় গত ২৭ শে অক্টোবর চ্যানেল ৭১ যে উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচার করেছে তাতে ৩০ লক্ষ শহীদ ও ২ লক্ষাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে চরমভাবে জাতির সামনে অসম্মানিত করেছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবার এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন পূর্বক এই চ্যানেলটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বার্তা প্রধান ও উক্ত প্রতিবেদকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

 

তিনি আরো বলেন যে, ৭১ সংখ্যাটি বাংলা ও বাঙালির অস্তিত্বের সাথে সম্পৃক্ত, সংখ্যাটি গাণিতিক হলেও এটা আমাদের অহংকার। এই সংখ্যাটির সাথে জড়িয়ে আছে ৩০ লক্ষ শহীদের প্রাণ, ৩ লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রম, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগ এবং মুক্তিকামী জনতার রক্ত, ঘাম ও শ্রম। হাজার বছরের পরাধীনতার শৃঙ্খল ছিন্ন করে মুক্তি হওয়ার প্রবেশদার ৭১ (একাত্তর)। পবিত্র এই সংখ্যা ও শব্দটিকে নিয়ে রাষ্ট্র ব্যতীত কেউ কোন ব্যক্তিগত কাজে ও বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করতে পারে না। চ্যানেল ৭১ (একাত্তর) এই পবিত্র শব্দটিকে যেন তেন পন্থায় বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করছে।

যেহেতু সংখ্যাটি রাষ্ট্রীয় ব্রান্ড সেহেতু এটার মালিক দেশের ১৬ কোটি জনগণ তাই এই সংখ্যাটি বা শব্দটি রাষ্ট্র ও সরকারের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ব্যতীত কেউ ব্যক্তিগত বা বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করতে যেন না পারে সে লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সরকার প্রধানের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। অনতিবিলম্বে তথ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সমূহের নিকট ৭১ (একাত্তর)সহ এই জাতীয় সার্বজননীন সংখ্যা বা শব্দ কোন ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করতে না পারে সেই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে চ্যানেল ৭১ এর জেলা-উপজেলা পর্যায়ে সংবাদ প্রতিনিধি হিসেবে যে বা যারা জামায়াত-শিবির ও উগ্র প্রগতিশীল রূপধারী প্রতিক্রিয়াশীল চক্রের সদস্য কর্মরত রয়েছে অনতিবিলম্বে তাদের তালিকা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির নিকট প্রেরণের জন্য মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে সংবাদ সম্মেলন সমাপ্ত করেণ।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মোঃ সেলিম রেজা, অর্থ সম্পাদক মাধবী ইয়াসমিন রুমা, ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক মাকসুদা সুলতানা ঐক্যসহ কেন্দ্রীয় ও বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ।


Share It
  • 171
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    171
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here