জীবনের থেকেও বড় জীবন গড়ো!

Share It
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এ ধরনীর ঐশ্বর্য তোমাকে বেধে রাখিতে পারে না,,,
জীবনের উপভোগ্য মুহুর্ত গুলো পর্যন্ত বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যায় নিয়ে যায়,,,, তারপর হঠাৎ ই অন্ধকার ঘনিয়ে আসে। বিদঘুটে জমাট বাধা হা হাকার করা অসম্ভব কালো অন্ধকার।
নতুন ভোরটা হয়তো কারো কারো দেখা হয়েই ওঠে না।
আসলাম..সবটা না দেখে যাই কী করে!!!
কেন আত্মসমর্পণ করবো নিজের কাছে। জিতে গিয়ে শুরু করেছি এই জার্নি তাহলে কেনো বিলিয়ে দেবো আপন প্রান এই নশ্বর দুনিয়ার নশ্বর মানুষ আর তার কার্যাবলির কাছে।
জীবন মানেই তো নতুন ভোর,,,এখানে বাধা আসে অবাধের অস্তিত্ব এর জানান দিতে,,,ভালো মানুষগুলো যে আসলেই ভালো…সেটা তো তাদের বিপরীতের মানুষগুলো জানান দেয়।
এসেছি যখন যেতে তো হবেই…. আজ বা কাল…
সহজভাবে হোক বা কঠিনতম ভাবে।
কিন্তু তাই বলে জীবনকে কেনো উপহাস করার সুযোগ দেবো???
কেনো অট্টহাস্যে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করতে দেবো আমার সত্তাকে নিয়ে।এ যে ঘোর হেরে যাওয়া। আমাকে আমার অপ্রয়োজনীয় লাগতে পারে,,,কিন্তু কেউ একজনের কাছে অন্তত আমি অমূল্য।
কেউ তো মন থেকে ভালোবাসে আমাকে৷ কেউ তো চায় আমি ভালো থাকি।
ওই কেউ মানুষ টার ওপর অন্যায় করলে তো পাপের বোঝা আরো ভারী হলো।
একটিদিন না হেসে কাটালে সে দিনটি নাকি অপচয় হয় তাহলে একটি জীবন নিজে নিজেকে ভালোবেসে না কাটালে কী সেটা জীবনের অপচয় নয়????
 এই ভাবনায় তো আমরা সৃষ্টিকর্তার কাছেও ঋনী হয়ে যাই।
কাদার সময় ভেবে নিও…হাসির দিন আসছে।
আবার হাসার সময় ও পরিমিত হেসো কারন সামনে খারাপ সময় ও অবশ্যই আসবে।
ফলাফল জানা থাকলে সেখানে ভয় কম হয়,,,জয় এর প্রবল ইচ্ছা উঁকি দেয়।
কখনো যদি বিদায় বেলার কথা মনে হয়….
যদি মনে হয় এ ধরনী আমার জন্য না…..
তবে এটা ভেবো….
মাত্র যে বাবা তার সন্তানকে কাধে করে কবরে শুইয়ে এসেছেন…তার থেকে তোমার কষ্ট বেশি না।
মাত্র যে অবুঝ শিশু ভূমিষ্ট হয়ে তার মা কে হারিয়েছে…তার না বুঝতে পারা কান্নার আর্তনাদে এর থেকে বেশি ক্ষোভ এই পৃথিবীর প্রতি প্রকাশ পায়।
তবু তারা বেচে থাকে,,,জীবনের নতুন মানে খোজে।
চিতকার করে কাদিতে গিয়ে চিতকার করে কাদতে হয়তো পারো নি…..
কিন্তু একবার হো হো হেসে দেখো হিংসে করার মানুষের অভাব হবে না।
জীবনটাকে সেই যায়গায় নিয়ে যাও… টিকে থাকতে সবাই পারে না,,, যে পারে সে ই দিনশেষে প্রাপ্তির হাসি হেসে বলতে পারে চিরবিদায় ।
পৃথিবীর ঋন চুকিয়ে তারপর ই ওপারের কথা ভেবো,,, উদাহরণ এর ঘাটতি মনে হলে নিজেই সেই উদাহরণ হয়ে যাও।
বাচো প্রিয় বাচো…..
ভালোবাসার সবটুকু স্বাদ আস্বাদন করে প্রতিটা সেকেন্ড নিজের করে রেখে অন্ধকার এর মায়া কাটিয়ে এক নতুন ভোরের সূচনা করো…..
দেখবে সেই ভোরের রোদ মিষ্টিই বটে…. নিজের জন্য বাঁচো..নিজেকে ভালোবাসো…নিজেই নিজের নিজস্বতায় নিমগ্ন থেকে একমুখ হাসি আর প্রাপ্তির সাথে বলিও….
জীবনের চেয়েও বড় এক জীবন গড়েছিলাম
LIFE IS REALLY REALLY WONDERFUL
রাগিব শাহরিয়ার রাফি
আইন বিভাগ
২য় বর্ষ
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

Share It
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here