Home ফিচার সত্য ইসলাম

সত্য ইসলাম

জকিগন্জে ঈসালে সওয়াব মাহফিলে লাকো মানুষের ঢল

জকিগন্জে ঈসালে সওয়াব মাহফিলে লাকো মানুষের ঢল। ফুলতলী ছাহেব বাড়ি সংলগ্ন বালাই হাওরে বুধবার অনুষ্ঠিত হলো আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)-এর ১২তম ইন্তেকাল বার্ষিকী উপলক্ষে বিশাল ঈসালে সাওয়াব মাহফিল। এতে মুরিদীন-মুহিব্বীনের উদ্দেশ্যে তা’লীম-তরবিয়ত পেশ করেন আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)-এর সুযোগ্য উত্তরসূরী উস্তাযুল উলামা ওয়াল মুহাদ্দিসীন, মুরশিদে বরহক হযরত আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরী বড় ছাহেব কিবলাহ ফুলতলী। সভাপতির বক্তব্যে...

দ্বীনের গভীর জ্ঞান অর্জন করুন মানুষকে পথের দিশা দিন।

দ্বীনের গভীর জ্ঞান অর্জন করুন মানুষকে পথের দিশা দিন। ফুলতলী ছাহেব বাড়ি সংলগ্ন বালাই হাওরে বুধবার অনুষ্ঠিত হলো আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)-এর ১২তম ইন্তেকাল বার্ষিকী উপলক্ষে বিশাল ঈসালে সাওয়াব মাহফিল। এতে মুরিদীন-মুহিব্বীনের উদ্দেশ্যে তা’লীম-তরবিয়ত পেশ করেন আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)-এর সুযোগ্য উত্তরসূরী উস্তাযুল উলামা ওয়াল মুহাদ্দিসীন, মুরশিদে বরহক হযরত আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরী বড় ছাহেব কিবলাহ ফুলতলী। সভাপতির...

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে হযরত মোহাম্মদ (সঃ) যে ৬টি কাজ করতে বলেছেন !

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যাদের কোন কিছু মনে থাকে না। আবার এমন কিছু ব্যক্তি রয়েছে, যারা কোন কিছু খুব বেশি দিন মনে রাখতে পারেন না। এমন সমস্যা মূলত দূর্বল স্মৃতিশক্তির কারণে হয়ে থাকে। স্মৃতিশক্তি বাড়াতে আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ৯টি কাজ করতে বলেছেন। সেগুলো হলো- ১. ইখলাস বা আন্তরিকতাঃ যে কোনো কাজে সফলতা অর্জনের ভিত্তি হচ্ছে ইখলাস বা আন্তরিকতা।...

আজ পবিত্র আশুরা

আজ শুক্রবার ১০ মুহাররম। পবিত্র আশুরা। আরবিতে ‘আশারা’ মানে ১০। তাই ১০ মুহাররম আশুরা নামে পরিচিত। আশুরা মুসলিম উম্মাহর জন্য এক তাৎপর্যময় ও শোকাবহ দিন। মুসলিম বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিত্র আশুরা পালিত হয়। এ উপলক্ষে রাজধানী ঢাকাসহ দেশব্যাপী বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। মুহাররমের ১০ তারিখে বা আশুরা দিবসে ঐতিহাসিক বহুবিধ গুরুত্বপূর্ণ ও স্মৃতিবহ ঘটনা সংঘটিত...

আপনার দৃষ্টিভঙ্গি আপনার চরিত্র ঈমান ও আমলের আয়না-এম,হবিবুর রহমান ছিদ্দিকী – পর্ব : ০১

প্রায় দুশত বছর আগের কথা, সম্ভবত ১৮শতকের গোড়ার দিকে। মোঘলরা তখন এ জনপদের অধিপতি। মোঘলদের শেষ সম্রাট ছিলেন বাহাদুর শাহ। তারই রাজ সভার কবি ছিলেন মির্জা আসাদুল্লাহ গালিব খাঁ। বেশ নাম ডাক ছিল তার রাজ সভার কবি হিসেবে। যাই হোক, কবি মাত্রই খেয়ালী মনা। গালিবও তাই। আরও ছিলেন মদপ্য। মানে মদে মাতাল। মদে মজলে হুঁশ থাকত না। একদিন মদ গিলেছেন।...