লক্ষ্মীপুরে ভূয়া ডাক্তারের কারাদন্ড

Share It
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

লক্ষ্মীপুরে অবৈধভাবে ডাক্তার পরিচয় ব্যবহার করে মানুষের সঙ্গে প্রতারণার করার দায়ে এম এ নাঈম (৪০) নামে এক প্রতারককে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রবিবার (১৪ জুলাই) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার জকসিন পূর্ব বাজারের মেসার্স কাজী ফার্মাতে রোগী দেখার সময় তাকে আটক করে র‌্যাব। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ওই প্রতারককে এক মাসের কারান্ড দেওয়া হয়।
দন্ডপ্রাপ্ত এম এ নাঈম সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়নের আটিয়াতলী গ্রামের রসুল আমিনের ছেলে।

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. খবিরুল আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এম এ নাঈম দীর্ঘদিন যাবত অবৈধভাবে ডাক্তার পরিচয় ব্যবহার করে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছেন বলে খবর পাওয়া যায়। তিনি এমবিবিএস কিংবা বিডিএস চিকিৎসক না হওয়া স্বত্ত্বেও ভিজিটিং কার্ডে অতিরিক্ত পদ-পদবি ও ভুয়া নিবন্ধন ব্যবহার করে মানুষের কাছে অতিরিক্ত যোগ্যতা প্রকাশ করেছেন। একই সঙ্গে রোগীদের প্রেসক্রিপশনে এন্টিবায়োটিক ঔষুধের নাম লিখছেন, এমন অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়।

এরই ভিত্তিতে বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৮ ও ২৯ এর (১) ধারায় এম এ নাঈমকে অভিযুক্ত করে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয় বলে জানান এই কর্মকর্তা।

এ অভিযানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, র‌্যাব-১১ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক নরেশ চাকমা, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফুর রহমান, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাজিব হোসেন প্রমুখ।


Share It
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here